আর্জেন্টিনা হতে চায় ২০৩০ বিশ্বকাপ আয়োজক

প্রকাশিত: আগস্ট ০৩, ২০২২, ০৪:৩০ দুপুর
আপডেট: আগস্ট ০৩, ২০২২, ০৪:৩০ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

কাতার বিশ্বকাপ মঞ্চায়ন হতে এখনও বাকি তিন মাসের বেশি সময়। তার আগে নির্ধারণ হয়ে গেছে ২০২৬ সালের আয়োজক দেশের নাম। এদিকে ৮ বছর পর নিজ দেশে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজন করতে চায় আর্জেন্টিনা। 

২০৩০ সালে ২৪তম বিশ্বকাপ আয়োজনের উদ্দেশে ফিফার কাছে মঙ্গলবার (২ আগস্ট) আবেদনপত্র জমা দিয়েছে আর্জেন্টিনা। অবশ্য তারা এককভাবে নয়, লিওনেল মেসিরা আসর আয়োজন করবে লাতিন আমেরিকার আরও তিনটি দেশকে সঙ্গে নিয়ে। সে তালিকায় আছে উরুগুয়ে, প্যারাগুয়ে ও চিলি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ‘মুন্ডোআলবিসেলেস্তে’।

এর আগে লাতিন আমেরিকায় প্রথম বিশ্বকাপ আয়োজিত হয় ১৯৩০ সালে উরুগুয়ে। ওই আসরটি ছিল ফুটবলের প্রথম বিশ্ব আসর। দুই আসর পরও ব্রাজিলও ১৯৫০ সালে নিজেদের দেশে প্রথম বিশ্বকাপ আয়োজন করে। লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে অবশ্য তারা সবচেয়ে বেশি দুই বার বিশ্বকাপ আয়োজন করে। সেলেসাওরা শেষবার বিশ্ব আসর আয়োজন করেছিল ২০১৪ সালে।

এদিকে ২০৩০ বিশ্বকাপ আয়োজন করতে চাওয়া চিলি প্রথম বিশ্বকাপ আয়োজন করে ১৯৬২ সালে। আর আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ সালে। তবে প্যারাগুয়ে এখন পর্যন্ত তাদের দেশে কোনো বিশ্বকাপ আসর আয়োজন করেনি। ফিফায় শেষ পর্যন্ত যদি তাদের আবেদন গৃহীত হয়, তাহলে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ অন্তত একবার আয়োজনের আক্ষেপ ঘুচবে প্যারাগুয়ের।

এদিকে ২০২৬ বিশ্বকাপ আয়োজন করবে উত্তর আমেরিকার তিন দেশ কানাডা, মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্র। ২৩তম বিশ্বকাপ আসর অবশ্য আয়োজনের জন্য ফিফা কাছে আবেদন জানিয়েছিল আফ্রিকার দেশ মরক্কোও। কিন্তু তারা উত্তর আমেরিকার তিন দেশের থেকে ৬৯ ভোট কম পাওয়ায় বঞ্চিত হন বিশ্বকাপ আয়োজন থেকে। মূলত ফিফার সদস্যভূক্ত ২০০ দেশ এ ভোটে অংশ নিয়েছিলেন। ২০৩০ বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য আর্জেন্টিনাকে ভোটাভুটিতে যেতে হবে আফ্রিকা ও ইউরোপের বেশ কিছু দেশের বিরুদ্ধে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়