সুখবর পেলেন নাসির

প্রকাশিত: অক্টোবর ০২, ২০২১, ০৫:৪৯ বিকাল
আপডেট: অক্টোবর ০২, ২০২১, ০৫:৪৯ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সময়টা একদমই ভালো যাচ্ছে না। ২২ গজের ক্রিকেটীয় পারফরমেন্স ছাপিয়ে ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বার বার আলোচনায়। সম্প্রতি বউ নিয়ে নতুন করে ঝামেলায় পড়েছেন তিনি।
তবে এরই মধ্যে পেলেন সুখবর। কয়েকদিন পরই শুরু হচ্ছে জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল)। তারই অংশ হিসেবে চলছে ফিটনেস পরীক্ষা- ইয়ো ইয়ো টেস্ট। জানা গেছে, পরীক্ষায় উতরে গেছেন নাসির। তিনি পেয়েছেন ১৭ নম্বর।


এছাড়া চমক দেখিয়েছেন আবু হায়দার রনি। তিনি পেয়েছেন ১৯.৩ নম্বর। এছাড়া ফিটনেস টেস্টে উতরে গেছেন নাঈম ইসলাম ও শুভাশীষ রায়। আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হবে এবারের এনসিএল। আসরের সবগুলো ম্যাচই সিলেট ও কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে গত মার্চে এনসিএল শুরু হলেও করোনার কারণে মাঝপথে বন্ধ হয়ে যায়।

দিনকয়েক আগে সংবাদমাধ্যমকে নাসির জানিয়েছিলেন জাতীয় দলে ফেরার ইচ্ছার কথা। সব ছেড়ে নতুন উদ্যমে শুরুর পরিকল্পনা তার। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজেকে ফিরে পাওয়ার মিশনে চোখ রাখছেন জাতীয় দলেও। তবে তার আগে অবশ্যই ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফরম্যান্স জরুরি। এ কারণেই ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো করে ফিরতে চান জাতীয় দলে।

ক্রিকেট নিয়ে সুখবর পেলেও ব্যক্তিগত জীবনে বিপদ কাটছেই না। শুধু অবৈধ উপায়ে বিয়েই নয়, রাষ্ট্রীয় নথি জালসহ বেশ কয়েকটি অপরাধে ফেঁসে যাচ্ছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন। অপরাধ প্রমাণিত হলে তার জন্য অপেক্ষা করছে বড় ধরনের শাস্তি।
নাসিরের আইনজীবী বলছেন, পিবিআইএর তদন্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্রিকেটারদের নৈতিক স্খলন রোধে এগিয়ে আসতে হবে বিসিবিকে। পরামর্শ দিলেন স্থায়ীভাবে মনোবিদ নিয়োগেরও।

তবে ঘটনার এখানেই শেষ নয়। নাসির-তাম্মির বিপক্ষে উঠেছে আরও গুরুতর অভিযোগ। প্রতারণা, বিচ্ছেদের কাগজ জালিয়াতি, মানহানি, ভুয়া নথিকে আসল কাগজ দাবি করার মত দণ্ডনীয় অপরাধ। যার জন্য তাদের বিরুদ্ধে অপেক্ষা করছে বড় ধরনের শাস্তি, দাবি রাকিবের আইনজীবী ইসরাত হাসানের।

তিনি বলেন, তারা একটা অপরাধ ঢাকতে গিয়ে আরো অনেকগুলো অপরাধের মধ্যে জড়িয়ে পড়েছেন। ডাক বিভাগ থেকে স্পষ্টভাবে বলে দেওয়া হয়েছে তাদের দেওয়া স্মারক নাম্বার থেকে কোনো ডিভোর্স লেটার রাকিবের কাছে যায়নি। তার মানে নাসির দম্পতি সরকারি নথিপত্রও জাল করেছে। যার শাস্তি ৭ বছরের জেল। এছাড়া ব্যাভিচারের জন্য ৫ বছর, স্বামী বর্তমান থাকা অবস্থায় আবার বিয়ে করার জন্য ৭ বছর, অন্যের স্ত্রীকে নিয়ে আসার জন্য ৩ বছরের সাজা, মানহানির জন্য ২ বছরের জেলসহ আরো অন্যান্য সাজাও যুক্ত হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়