নিউজিল্যান্ডে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৩:২৬ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: করোনার মধ্যে প্রথমবার বিদেশ সফরে গেছে বাংলাদেশ। গতকাল মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে উড়াল দিয়েছিল লাল-সবুজের দল। আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকালে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছেছেন তামিম-মুশফিকেরা। নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছায় বাংলাদেশ দলের বহর। খবরটি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবীদ ইমাম।

শর্ত অনুযায়ী- তিন দফা করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হয়ে বিমানে উঠেছে বাংলাদেশ দল। কোচিং স্টাফ ও ক্রিকেটারেরা মিলে মোট ৩৫ সদস্যের দল গেছে নিউজিল্যান্ডে। সেখানে শুরু হবে কোয়ারেন্টিন পর্ব। ক্রাইস্টচার্চে আপাতত প্রথম দুসপ্তাহ থাকতে হবে তামিমদের।

দেশের মধ্যে এরই মধ্যে জৈব-সুরক্ষা বলয়ের অভিজ্ঞতা হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। তবে এবার বিদেশের মাটিতে কোয়ারেন্টিন পরীক্ষা দিতে হবে লাল-সবুজদের। পুরো রুমবন্দি থাকতে হবে প্রথম সাত দিন। ওই সাত দিন পরস্পরের সঙ্গেও দেখা করা নিষিদ্ধ। এমনকি নিজের রুমও পরিষ্কার করতে হবে নিজেদের। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে সফরে যাওয়ার আগে মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলেন সৌম্যরা। যাওয়ার আগে বিমানবন্দরে সৌম্য বলেন, আমার মনে হয়, সফরে অবশ্যই ভালো কিছু হবে। সবাই যেভাবে মানসিক ও ক্রিকেটীয় প্রস্তুতি নিয়েছে, আশা করি সবাই ভালোই করবে। আগে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে জেতা হয়নি, এবার যেন আমরা সেটা ভাঙতে পারি, জিতে ফিরতে পারি সেই প্রত্যাশা। ওয়েস্ট ইন্ডিজে ওয়ানডেতে সবাই ভালো করেছে। সেখানেও আমাদের ওয়ানডে সিরিজ আছে। আশা করি ভালো করবে।

দেশ ছাড়ার আগে নিজের প্রত্যাশার কথা জানিয়ে গেলেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, আমরা সবাই জানি, নিউজিল্যান্ড কন্ডিশন আমাদের জন্য কঠিন। কিন্তু অসম্ভব কিছুই না। আমরা চেষ্টা করব যে জিনিসটা নিউজিল্যান্ডে কোনোদিন অর্জন করিনি, এবার সেটা অর্জন করতে পারি। আমরা আশাবাদী। একই বার্তা দিলেন বিসিবি পরিচালক জালাল ইউনুসও। তিনি বলেন, কঠিন সফর। খুবই চ্যালেঞ্জিং একটা সিরিজ। এটাতে কোনো বিতর্ক নেই। ছেলেদের দেখে মনে হয়েছে ওরা প্রস্তুত। আমাদের যেমন করেই হোক, লড়াই করে আসতে হবে। আমাদের সিরিজটা ভালো খেলতেই হবে।

আগামী ২০ মার্চ থেকে ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশ বনাম নিউজিল্যান্ডের লড়াই। সিরিজের পরের দুই ওয়ানডে হবে ২৩ ও ২৬ মার্চ। কয়েকদিন আগে নিউজিল্যান্ড সফরের সূচিতে কিছুটা বদল এনেছিল স্বাগতিক ক্রিকেট বোর্ড। তবে সূচি বদলালেও আগের ভেন্যুতেই হবে খেলা। সিরিজের প্রথম ওয়ানডে হবে ডানেডিনে, দ্বিতীয়টি হবে ক্রাইস্টচার্চে আর শেষটি হবে ওয়েলিংটনে। এই ক্রাইস্টচার্চেই সবশেষ নিউজিল্যান্ড সফরে খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। ওই টেস্টের আগে ক্রাইস্টচার্চের একটি মসজিদে হামলা হলে টেস্ট সিরিজের মাঝপথে দেশে ফিরে আসে বাংলাদেশ দল।

আসন্ন সফরে আগামী ২৮ মার্চ থেকে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের পরের দুটি টি-টোয়েন্টি হবে ৩০ মার্চ ও ১ এপ্রিল। প্রথম ম্যাচটি হবে হ্যামিল্টনে, দ্বিতীয়টি নেপিয়ারে, শেষটি অকল্যান্ডে।