লেবু চাষে সিলেটের মোজাহিদের বাজিমাত

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৫:২৪ পিএম, ২১ জুলাই ২০২০

সিলেট প্রতিনিধি : সিলেটের গোয়াইনঘাটের সর্ব দক্ষিণে অবস্থিত ৬নং ইউনিয়ন ফতেহপুর। পাহাড়টিলা আর সবুজ অরণ্যেঘেরা শান্ত আর প্রকৃতির নিবিড়তা এই ইউনিয়নকে উত্তর সিলেটের অক্সিজেনের ভান্ডারও বলা হয়। উপজেলা সদর গোয়াইনঘাট হতে ফতেহপুর ইউনিয়নের দূরত্ব ১৭ কিলোমিটার। ফতেহপুর বাজার হতে দক্ষিণ দিকে ১ কিলোমিটার পথ এগুলেই চোখে পড়বে পাহাড় আর গহিণ অরণ্যের গ্রাম ফতেহপুর বানিগ্রাম।

সবুজ অরণ্যে ঘেরা এখানকার পাহাড়কে ঘিরে স্বপ্নরাজ ছিলেন একজন সফল কৃষক। বাবা আর দাদার হাতে কৃষিতে হাতে খড়ি। যে কারণে ছোট বেলা থেকে তাকে তাড়িত করে কৃষিতে। এ গ্রামের আলো বাতাস আর প্রকৃতিতে বেড়ে উঠেছেন। সেই প্রকৃতিকে আপন করে তার কৃষিতে অগ্রযাত্রা। শুরুতে হোচট খেলেও দমে জাননি তিনি। হাটিহাটি পা-পা করে এগিয়েছেন। এগিয়েছে তার পথচলা। তার রোপিত বাগানের উৎপাদিত ফসল তাকে এবং তার পদচারনায় গোটা গোয়াইনঘাট এমনকি পূণ্যভূমি সিলেটকে করেছে দেশ বিদেশে আলোচিত। তার বাগানের উৎপাদিত জাড়া লেবু গোটা দেশ ছাড়িয়ে মধ্যপ্রাচ্য, আমেরিকা ইউরোপসহ বিশে^র বাজারে আলোকিত করেছে। যাকে নিয়ে এমন আলোকপাত তিনি হলে গোয়াইনঘাটের সফল কৃষক মোঃ মোজাহিদুল ইসলাম।

গোয়াইনঘাটের সবুজ অরণ্যঘেরা ফতেহপুরের বিস্তৃত পাহাড়ের গায়ে তার বাগানসমুহে সব ধরনের ফল ফসলের সমারোহ থাকলেও জাড়া লেবু চাষ করে তিনি দীর্ঘদিন থেকে সফলতার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। নিজে উপকারভোগি হওয়ার পাশাপাশি কৃষিতে তিনি গোয়াইনঘাটকে নিয়ে গেছেন এক অনন্য উচ্চতায়। ফতেহপুরের সফল কৃষক মোজাহিদ ১৯৯৮ জাড়া লেবু চাষাবাদের মাধ্যমে কৃষিতে জড়িয়ে পড়েন। সেই থেকে জাড়া লেবু চাষাবাদে এখনো তার ছুটেচলা। শুধু নিজের মধ্যে নয়, এ লেবুর লাভজনক দিক এলাকার কৃষকদের মাঝে তুলে ধরে তাদেরও জাড়া লেবুসহ কৃষিতে উৎসাহিত করে যাচ্ছেন।

পুরোটা বাগান জুড়ে পাখ-পাখালির এক অভয়াশ্রম। ঘুঘু, শ্যামা, ময়না, শালিকের গানে পরিপূর্ণ সবুজ নিরবতায় ঘেরা টিলা, পাহাড়ের বাগান বাড়ি যেন প্রকৃতিকে করেছে আলিঙ্গন। টিলা, পাহাড়ের গায়ের গাছের ডালে ডালে পাখির বাসা। সুউচ্চ গাছের ঘুঘু আর ময়না পাখির ডাক যেন মুগদ্ধতা ছড়ায়। এই বাগান বাড়িরই এক টিলা থেকে আরেক টিলায় বিস্তৃত তার জাড়া লেবুর সারিবদ্ধ গাছ। প্রতিটি গাছে ঝুলে আছে বড় বড় জাড়া লেবু। তার বাগানের উৎপাদিত এ জাড়া লেবুর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে সিলেটে। শুধু সিলেটে নয়। সিলেটি ভাষাভাষি জাতি সত্তার মানুষজন যেখানেই আছে সেখানেই রয়েছে জাড়া লেবুর কদর। বিশেষ করে অর্থকরি এ ফসলের ব্যাপক চাহিদা আছে মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ ও আমেরিকায়। জাড়া লেবু রপ্তানি করে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণ বৈদেশিক টাকা আয় হয়ে থাকে।

গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব বলেন, গোয়াইনঘাটের সফল কৃষক মোজাহিদের কৃষিতে সফলতার গল্প শুনেছি। তার প্রতি সরকার ও প্রশাসনের তরফে সব ধরণের সহযোগিতার পথ খোলা রয়েছে। সফল এ কৃষকের মাধ্যমে কৃষিতে প্রতি বছরই বিদেশে জাড়া লেবু রপ্তানি হতে ব্যাপক বৈদেশিক অর্থ আসছে। তার মতো একজন সফল ও আলোকিত কৃষকের মাধ্যমের কৃষি স্বনির্ভরতায় আরও এগিযে যাবে গোয়াইনঘাট।