হাঁস পালনে ভাগ্যের পরিবর্তন করতে চায় রাসেল মিয়া

BoguraProdip BoguraProdip
প্রকাশিত: ১০:১৭ পিএম, ৩০ মে ২০২১


ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার শীধলগ্রাম কাশিয়াতলার রাসেল মিয়া হাঁস পালন করে তার ভাগ্যের পরিবর্তন করতে চান। 
রাসেল মিয়া জানান, সে একদিনের প্রতিটি বাচ্চা ২৭ টাকা করে ক্রয় করে এনেছেন। তিন মাস হাঁসের বাচ্চাগুলো লালন-পালন করে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা প্রতি শয়ে বিক্রি করবে। ৩ হাজার একদিনে হাঁসের বাচ্চা ক্রয় করতে তার ব্যয় হয়েছে প্রায় ৮১ হাজার টাকা। তিন মাস লালন-পালন করে তার ক্রয়সহ অন্যান্য খাবারের ব্যয়সহ দেড় থেকে দুলাখ টাকায় দাড়াবে। 
তিন মাস পর এ হাঁসগুলো বিক্রি করে সে পাবে ৩ থেকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা। সে জানায় তিন মাসে সে হাঁস পালন করে লাভবান হবে ১ থেকে দেড় লাখ টাকা। 
রাসেল মিয়া আরো জানায়, বর্ষা মৌসুমে মাঠ থেকে ইরি-বোরো ধান কাটার পর পরবর্তীসময়ে আমন ধান রোপনের পূর্ব পর্যন্ত সহজভাবে মাঠ-ঘাটে হাঁস লালন-পালন করা যায়। এসময় হাঁসের খাদ্যও অনেক কম লাগে। সারাদিন ধান কাটা জমিতে এবং রাস্তার ধারের ডোবায় হাঁস নিয়ে গিয়ে শুধু বসে থেকে দেখাশুনা করলেই সারাদিনের খাবার সংগহ করে তারা।
বর্ষা মৌসুম ছাড়া অন্য সময় রাসেল মিয়া পরিত্যক্ত মজা পুকুরগুলো অল্পমূল্যে লিজ নিয়ে সেখানে হাঁস পালন করে থাকে। এতে সে বছরে সব খরচ বাদেও ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা আয় করে থাকেন। বেকার যুবকদের হাঁস পালন করে লাভবান হওয়া যাবে বলে মনে করেন রাসেল মিয়া।