অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত শিশু জয় চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চান

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ১০:৩৬ এএম, ৩০ জানুয়ারি ২০২১

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের কুশাহাটা গ্রামের রতন মিয়ার ছেলে মাহমুদুল হাসান জয়(৮)। জন্মের পর অজ্ঞাত রোগে দিনদিন শিশুটির মাথার আকৃতি বেড়ে যাচ্ছে। তার দেহের চেয়ে মাথার ওজন বেড়ে যাওয়ায় শিশুটি স্বাভাবিক চলাফেরা করতে পারে না। ফলে ওই শিশুর ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বিগ্ন তার পিতামাতা। বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের কুশাহাটা গ্রামের রতন মিয়া ও মোছাঃ ছালমা বেগমের ঘরে জন্ম নেয়া মাহমুদুল হাসান জয় স্বাভাবিক ভাবে জন্ম নিলেও অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হওয়ায় দিনদিন তার মাথার আকৃতি বড় হতে থাকে। এতে করে দেহের সাথে তার মাথার ভারসাম্য রক্ষা করতে না পারায় সে স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করতে পারে না।

 একমাত্র ছেলেকে সুস্থ করে তোলার জন্য তার বাবা-মা বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা করে মোটা অংকের অর্থ ব্যয় করেও কোন সমাধান করতে পারেনি। এরপর ওই শিশুটিকে চিকিৎসক ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেন। সেখানকার চিকিৎসক দেশের বাহিরে গিয়ে অপারেশন করার পরামর্শ দেন। এতে ৫ থেকে ৬ লাখ টাকার প্রয়োজন। জয়ের দরিদ্র বাবা পেশায় একজন নির্মাণ শ্রমিক। বাড়ির জমি  ছাড়া কোন জায়গা-জমি নেই তার। তাই  তাদের একমাত্র ছেলের ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বিগ্ন।

জয়ের মা ছালমা বেগম জানান, অন্যের সহযোগিতা ছাড়া জয় চলাচল করতে পারে না। স্বাভাবিক সব ধরনের খাবার খায় সে। মায়ের সহায়তা নিয়ে গোসল, খাওয়া-দাওয়া ও পেশাব পায়খানা করে। শিশু জয় জানায়, আমিও অন্য শিশুদের মতো স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে চাই। পৃথিবীর আলো বাতাসে বাবা-মার সাথে বেঁচে থাকতে চাই। চলাচলের জন্য জনপ্রতিনিধিদের নিকট একটি হুইল চেয়ারের দাবি তার। আর চিকিৎসার জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ   হাসিনার সহযোগিতা চেয়েছে শিশুটি।