চাটখিলে পানির অভাবে বোরোধান উৎপাদন অনিশ্চিত, কৃষকরা হতাশ

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ০৮:৪২ এএম, ৩০ জানুয়ারি ২০২১

চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি : নোয়াখালীর চাটখিলের দক্ষিণাঞ্চলের ৯নং খিলপাড়া ইউনিয়নের বালিয়াধর গ্রামের কচুয়া খালের স্লুইস গেট খুলে দেওয়ায় এ অঞ্চলের কয়েক হাজার একর জমির বোরোধান উৎপাদন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এতে করে কয়েক হাজার কৃষকও হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। শতাধিক কৃষক চাটখিলে এসে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে বিক্ষোভ মিছিল করে চাটখিল প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের নিকট তাদের অভিযোগ জানান।

কৃষকদের অভিযোগে জানা যায়, বালিয়াধর গ্রামে কচুয়া খালে সরকারিভাবে অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে  স্লুইস গেট নির্মাণ করা হয়। এ স্লুইস গেট থাকায় কচুয়া খালের পানি দিয়ে বালিয়াধর থেকে রুহিতখালী পর্যন্ত কৃষকরা কয়েক হাজার একর জমিতে বোরোধান চাষ করে থাকেন। ইতোমধ্যে কৃষকগণ বোরোধান রোপণ শেষ করেছেন। গত ২৫ জানুয়ারি রাতে চুরি করে কে বা কারা স্লুইস গেট খুলে দেয়। এতে করে কচুয়া খাল এবং জমিতে থাকা পানি নেমে যায়। জমিতে পানি না থাকায় কৃষকের রোপণ করা বোরোধান নষ্ট হতে চলেছে। কৃষকগণ আরো অভিযোগ করেন একটি পরিবারের স্বার্থের জন্য হাজার হাজার কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হতে চলেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সালেহ মোহাম্মদ জানান, তিনি কৃষকদের নিকট থেকে অভিযোগ পেয়েছেন। এ ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দিয়েছেন।