সাতক্ষীরার বিস্তীর্ণ মাঠে সরিষা ফুলের সমারোহ চাষ হচ্ছে মধু, চলছে বিদেশ পাঠানোর প্রস্তুতি

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ০৪:৪১ পিএম, ৩১ ডিসেম্বর ২০২০

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা জেলার বিস্তীর্ণ মাঠে এবার আবাদ হয়েছে সরিষার। যেদিকে দু’চোখ যায় সেদিকে শুধু হলুদের সমারোহ। সরিষার হলুদ ফুলের গন্ধ যেন দিক দিগন্ত রাঙিয়ে দিয়েছে। মাঠের পর মাঠ হলুদ হাসিতে ভরে তুলেছে প্রকৃতির চিত্র। চির সবুজের বুকে এ যেনো কাঁচা হলুদের আল্পনা। প্রকৃতি  সেজেছে অপরূপ সৌন্দর্যের নান্দনিক রূপে। ফুলে ফুলে মৌমাছি মধু আহরণ করছে। সেই সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে সরিষার ক্ষেত থেকে মধু আহরণ। সরকারের সহযোগিতা পেলে দেশের চাহিদা মিটিয়ে এই মধু বিদেশে রফতানি করতে পারলে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন হবে বলে আশাবাদ মধু চাষিদের।সাতক্ষীরা কৃষিসম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, জেলায় এবার ১১ হাজার ৫শ’ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষ হয়েছে। মধু আহরণের জন্য জেলায় এবার সরিষার ক্ষেতের চারিপাশে ৩ হাজার মৌচাষি ১০ হাজারের বেশি মৌবক্স বসিয়েছেন। সুন্দরবন ঘেঁষা এই জেলায় মধু উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২৭শ’ মেট্রিক টন।

সদর উপজেলার তলুইগাছা গ্রামের কৃষক মাহবুবুর রহমান, আশরাফ আলী ও বেলাল হোসেন জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় সরিষার ফসলের কোন রোগ বালাই নেই এবং ফলনও ভাল হয়েছে।  মৌমাছির পরাগায়ণের ফলে সরিষার ফলন এবার ১৫ থেকে ২০ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। মৌচাষি শাহাজান আলী,  মেহেদী, হাসান ও জিয়াউর রহমান জানান, মধুর দাম দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। লাভজনক ব্যবসা হওয়ায় প্রতি বছর বাড়ছে মৌচাষির সংখ্যা। কর্মসংস্থান হয়েছে বেকার যুবকদের। এই মধু বিদেশে পাঠাতে পারলে তারা আরও বেশি লাভবান হবেন বলে তারা জানান।
মধু ব্যবসায়ী মোশারাফ হোসেন জানান, তিনি শহরের রসূলপুর এলাকায় মধু প্রক্রিয়াজাতকরণ মেশিন স্থাপন করেছেন।

 নামমাত্র মূল্যে তিনি এখানে মধু প্রক্রিয়াজাত করেন। মধু বিদেশে রফতানি করার জন্য ইতিমধ্যে দেশ বিদেশী ক্রেতাদের সাথে তার কথা হয়েছে। পরীক্ষামূলকভাবে কিছু মধু সে সব দেশে পাঠানোও হয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি আরও জানান, সরকারের সহযোগিতা পেলে দেশের চাহিদা মিটিয়ে মধু বিদেশে রফতানি করতে পারলে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন হবে।জেলা কৃষিসম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ নূরুল ইসলাম জানান, জেলার প্রতিটি উপজেলায়  সরিষার চাষ হয়েছে। সরিষা ক্ষেত থেকে  মৌমাছি মধু আহরণ করলে ফসলের কোন ক্ষতি হয় না।  সরিষা ফুলের মধু সব চেয়ে বেশি উপকারি।