সীমান্তহত্যা বন্ধে চোরাচালান ঠেকাতে হবে বললেন ভারতীয় হাইকমিশনার

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৭:০৬ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০২১

রংপুর প্রতিনিধি: অবৈধ কর্মকাণ্ডের কারণেই সীমান্তহত্যার মতো ঘটনা ঘটছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী। এজন্য সীমান্ত এলাকায় উভয় দেশের নাগরিককেই অবৈধ কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে উপহারস্বরূপ রংপুর সিটি করপোরেশনকে দেওয়া অ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন ভারতীয় হাইকমিশনার।
হাইকমিশনার বলেন, মাদক ও চোরাচালান আমাদের উভয় দেশের সমস্যা। এনিয়ে দুই দেশের সরকার কাজ করছে। উভয় দেশ মাদক চোরাচালান প্রতিরোধের জন্য একসঙ্গে কাজ করছে।
সীমান্তে হত্যা বন্ধ না হওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী বলেন, সীমান্তে যে কোনো হত্যাকাণ্ড বা হতাহত উভয় দেশের জন্য দুঃখজনক ও অপ্রত্যাশিত। দুই দেশের সম্মিলিত পদক্ষেপে এ ধরনের দুঃখজনক ঘটনা নিরসন করতে হবে। ভারতীয় সীমান্তরক্ষীকে সুনির্দিষ্টভাবে বলা হয়েছে, যদি তাদের ওপর হামলার কোনো শঙ্কা না থাকে, তবে যেন সীমান্তে কোনো অবস্থায়ই গুলি না চালায়। আমরা কোনো দেশেই সীমান্ত হত্যা চাই না।
তিনি বলেন, কোনো জীবন নষ্ট হওয়া কখনোই কাম্য নয়। সীমান্তে অবৈধ কার্যক্রম বেড়েছে। বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশকে রুট হিসেবে ব্যবহার করে উপকৃত হতে চেষ্টা করছে। সীমান্তহত্যা বন্ধ করতে হলে চোরাচালান বন্ধ করতে হবে। চোরাচালানের কারণে সীমান্তে হত্যার ঘটনা ঘটছে। তবে আগামীতে সীমান্ত হত্যার মতো ঘটনা যেন না ঘটে সে ব্যাপারে ভারত সরকার সজাগ রয়েছে।
তিস্তায় হঠাৎ পানি বৃদ্ধি প্রসঙ্গে হাইকমিশনার বলেন, দুর্বল সিগন্যালের কারণে আমরা বাংলাদেশ সরকারকে আগাম বার্তা দিতে পারিনি। এ নিয়ে আমরা কাজ করছি।
এসময় নারীদের শিক্ষা, স্বাস্থ্যখাতসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বন্ধুরাষ্ট্র হিসেবে ভারতের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার কথা বলেন ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী।


আরও পড়ুন