দিনাজপুরে ফেনসিডিলসহ মাইক্রোবাসের চালক ও ইয়াবাসহ নারী গ্রেপ্তার

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৭:৪১ পিএম, ১৩ অক্টোবর ২০২১

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুর থেকে মাইক্রোবাসটি ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়েছিল। তবে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে চিরিরবন্দর উপজেলার চকমুসাপুর এলাকা থেকে ওই মাইক্রোবাসে প্লাস্টিক বস্তার ভেতর থেকে ৫৮৪ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে র‌্যাব। আজ বুধবার সকালের এ ঘটনায় মাইক্রোবাসের চালক শাহিন সরদারকে (২৮) গ্রেপ্তার করা হয়।
অন্যদিকে তিন হাজার ইয়াবা বড়ি নিয়ে ঢাকা থেকে দিনাজপুরের উদ্দেশে আসছিলেন আরিফা বেগম (৪৯)। গতকাল মঙ্গলবার রাত একটায় দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ সড়কের সদর উপজেলার পাঁচবাড়ি নামক এলাকায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে গ্রেপ্তার হন তিনি। আজ দুপুরে তাঁকেও আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
গ্রেপ্তার হওয়া শাহিন সরদার শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার পশ্চিম মাইকপাড়া গ্রামের মৃত জহুরুল হকের ছেলে। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানিয়েছেন, দিনাজপুরসহ উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা থেকে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে দেশের বিভিন্ন জেলা শহরে বিক্রি করেন তিনি।
র‌্যাব-১৩ দিনাজপুরের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মাহমুদ বশির আহমেদ বলেন, শাহিন সরদার প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাঁকে ফেনসিডিলসহ আটক করা হয়। চিরিরবন্দর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।
ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার আরিফা বেগম দিনাজপুর সদর উপজেলার শেখপুরা ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর ভাটপাড়া গ্রামের শাহাজাহান সরকার ওরফে কবিরাজের স্ত্রী।
জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক লোকমান হোসেন বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নিয়মিত তল্লাশি অভিযান চলাকালে সদর উপজেলার পাঁচবাড়ি নামক এলাকায় আরিফাকে আটক করা হয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। নিয়মিত ঢাকা থেকে এসব মাদকদ্রব্য নিয়ে যাত্রীবাহী কোচে করে এনে দিনাজপুরসহ পার্শ্ববর্তী জেলা শহরে সরবরাহ করেন। তাঁর স্বামী শাহাজাহান কবিরাজের নামে দিনাজপুর কোতোয়ালি থানায় মাদকের আটটি মামলা রয়েছে।


আরও পড়ুন