পাবনায় কোর্ট চত্বরে সন্ত্রাসীদের হামলায় পাঁচ আইনজীবী আহত

প্রকাশিত: জানুয়ারী ২৬, ২০২২, ০৯:৫৯ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ২৬, ২০২২, ০৯:৫৯ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় সাক্ষী অপহরণকে কেন্দ্র করে আইনজীবীদের ওপর হামলা করে মারধর করেছে সন্ত্রাসীরা। এতে ৫ আইনজীবী গুরুতর আহত হয়েছেন।
আজ বুধবার বিকেল ৪ টার দিকে কোর্ট চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এদিকে আইনজীবীদের ধাওয়ায় সন্ত্রাসীরা অবস্থা বেগতিক ভেবে দৌড়ে গিয়ে পাবনা পৌরসভার মেয়র শরীফ উদ্দিন প্রধানের কার্যালয়ে গিয়ে আশ্রয় নেয়। মুহূর্তের মধ্যে পৌরসভার প্রধান গেট বন্ধ করে দেয়। এ সময় বিপুল সংখ্যক আইনজীবী পৌরসভার সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের আশ্বস্ত করলে তারা বিক্ষোভ ও অবরোধ তুলে নেন।
সন্ত্রাসী হামলায় আহত আইনজীবীরা হলেন- সাদিক ফয়সাল, রিজভী শাওন, সানি ইসনাইন রিজভী প্লাবন, রাশেদুজ্জামান ও আরিফুজ্জামান।
আহত আইনজীবীদের সাথে আলাপকালে তারা বলেন, আজ বৃহস্পতিবার আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। বুধবার দুপুরে কোর্ট চত্তর থেকে সাক্ষী অপহরণে বাধা দেওয়া হয়। পরে ভোট চাইতে শতাধিক আওয়ামীপন্থী আইনজীবী বের হন। কোর্ট থেকে পৌরসভার সামনে গেলে অতর্কিতভাবে কৃষ্ণপুর-গোবিন্দা মহল্লার জনিসহ তিন যুবক তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তাদের প্রতিহত করতে পাল্টা ধাওয়া দিলে ওই তিনজন কৌশলে পৌরসভার দোতলায় মেয়রের কক্ষে প্রবেশ করে। এ সময় আইনজীবীরা সেখানে প্রবেশ করার সাথে সাথে ধারালো অস্ত্রসহ মারধর করে।
পৌর কর্তৃপক্ষ মূহুর্তের মধ্যে পৌরসভার প্রধান গেট বন্ধ করে দিয়ে সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয় দেয় পৌর কর্তৃপক্ষ বলে অভিযোগ করেন তারা।
এ বিষয়ে পাবনা পৌরসভার মেয়র শরীফ উদ্দিন প্রধান বলেন, কোর্ট চত্বর থেকে ধাওয়া খেয়ে কয়েকজন লোক পৌরসভা চত্বরে এসে অন্য মানুষের মধ্যে মিশে যায়। এ সময় হট্টগোল শুরু হওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দায়িত্বরত পৌর কর্মীরা গেট বন্ধ করে দেয়। আমি তাদের কাউকে চিনতে পারিনি।
পাবন সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অভিযুক্তদের মধ্যে একজনের নাম পরিচয় পেয়েছে। বাকিদের শনাক্তসহ আটক করতে অভিযান চালাচ্ছে। তিনি বলেন, আইনজীবীদের অভিযোগ পাইনি। পেলে মামলা হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হবে।
পাবনা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট বেলায়েত আলী বিল্লু ও সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আইনজীবীদের ওপর হামলা ঘটনাটি ন্যক্কারজনক দুঃখজনক ঘটনা। দ্রুত হামলাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। আইনজীবী পরিষদের পক্ষ থেকে একজন বাদি হয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়