বগুড়ায় যমুনা ব্যাংকের কর্মকর্তাসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে দুদক’র চার্জশিট

প্রকাশিত: জানুয়ারী ১৬, ২০২২, ০৯:০৮ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ১৬, ২০২২, ০৯:০৮ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

কোর্ট রিপোর্টার: প্রতারণা, জালিয়াতি, দুর্নীতি ও মানিলন্ডারিংয়ের মাধ্যমে যমুনা ব্যাংক বগুড়া শাখা থেকে ১৫ কোটি ৬০ লাখ ৬৯ হাজার ৪৩১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ওই ব্যাংকের দুই কর্মকর্তা (বরখাস্ত) ও ব্যবসায়ীসহ ১০ জনকে অভিযুক্ত করে দুদক সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে অভিযোগপত্র (চর্জশিট) দাখিল করেছে।
অভিযুক্তরা হলো রংপুর শহরের জিএল রায় রেডের বাড়ি এলাকার মৃত মোহতাসিম বিল্লাহের ছেলে ও যমুনা ব্যাংক লিমিটেড বগুড়া শাখার এভিপি ও শাখা ব্যবস্থাপক (বরখাস্ত) মো. সাওগাত আরমান, নওগা শহরের খাস নওগার বর্তমানে বগুড়া শহরের কাটনার পাড়ার উটের মোড়ের সিরাজুল হকের ছেলে ও যমুনা ব্যাংক লিমিটেড বগুড়া শাখার এক্সিকিউটিভ অফিসার (বরখাস্ত) মো. রেজওয়ানুল হক, সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার দোগাড়িয়া আড়ং পাইলের আবু হাসানের ছেলে ও বর্তমানে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার সাজাপুরের মেসার্স আমিন ট্রেডার্সের প্রোপাইটর সায়াদ আমিন, বগুড়া শহরের উপশহরের আলহাজ্ব মতিয়াল রহমানের ছেলে ও রহমান মেটালের প্রোপাইটর মসিউর রহমান, কাহালু উপজেলার কাহালু বাজার সরদার পাড়ার বর্তমানে নামাজগড় প্রত্যাশা হাউজিংয়ের আব্দুল জলিলের ছেলে ও অরশা এন্টারপ্রাইজের প্রোপাইটর পিএম আরিফুল ইসলাম, আদমদীঘি উপজেলার কুন্দগ্রামের বর্তমানে বগুড়া শহরের শিববাটি মৃত হাবিবুর রহমান মন্ডলের ছেলে আলী আজগর মন্ডল, শিবগঞ্জ উপজেলার কিচকের নজরুল ইসলাম চৌধুরীর ছেলে ও সোর্স অর্ণব ট্রেডাসের প্রোপাইটর মোমিনুল ইসলাম চৌধুরী, গাবতলীর সাগাটিয়া ঘোনপাড়ার ইউছুব আলী প্রাংয়ের ছেলে ও মোসার্স ইউছুব আলী ট্রেডার্সের প্রোপাইটর মিজানুর রহমান মশিউর, মালতিনগর বকশি বাজার লেনের মনোয়ার রহমানের ছেলে ও মেসার্স সাকিল ট্রেডার্সের প্রোপাইটর হামিদুর রহমান সুজা ও শিবগঞ্জ উপজেলার নাট মরিচাই পূর্বপাড়ার মৃত মোবারক আলী প্রাংয়ের ছেলে ও মেসার্স জয় ট্রেডাসের প্রোপাইটর ফজলার রহমান জয়। আসামি সাওগাত আরমান জেল হাজতে আটক আছে এবং অপর ৯ আসামি পলাতক থাকায় অভিযোগপত্রে তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা, ক্রোকি পরোয়ানা ও হুলিয়া জারির জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়