বগুড়ায় গুলিবিদ্ধ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা অরেঞ্জ মারা গেছেন

প্রকাশিত: জানুয়ারী ১১, ২০২২, ১২:২৪ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ১১, ২০২২, ১২:২৪ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার: : বগুড়ায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার ৮দিন পর স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নাজমুল হাসান অরেঞ্জ (২৫) মারা গেছেন। সোমবার রাত ১১টার দিকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ(শজিমেক) হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। হাসপাতাল সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বগুড়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সহ-সম্পাদক অরেঞ্জ শহরের মালগ্রাম দণিপাড়ার রেজাউল ইসলামের ছেলে। গত ২ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৮টার দিকে মালগ্রাম ডাবতলার মোড়ে সন্ত্রাসীদের গুলিতে গুরুতর আহত হন অরেঞ্জসহ একই এলাকার মৃত মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আপেল। অরেঞ্জের চোখের নিচে আর আপেলের পেটে গুলি লাগে।  

এদের মধ্যে গুরুতর আহদ অরেঞ্জকে হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) হয়। সেখানেই তিনি গত ৮দিন চিকিৎসাধীন ছিলেন। এ ঘটনায় আহত আপেল নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।  

এদিকে এ ঘটনায় ৩ জানুয়ারি বগুড়া সদর থানায় সাতজনের নাম উল্লেখ করে মোট ১২ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা করেন অরেঞ্জের স্ত্রী স্বর্নালী আক্তার। পরে গত বৃহস্পতিবার রাতে মামলার ৭ নম্বর আসামী টিপুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

বগুড়া সদর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান,  অরেঞ্জ মারা গেছেন। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে। আর এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়