অর্থপাচার মামলায় হাইকোর্টে জামিন পেলেন বগুড়ার তুফান

প্রকাশিত: জানুয়ারী ০৫, ২০২২, ১০:১১ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ০৫, ২০২২, ১০:১১ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়ার বহিষ্কৃত শ্রমিক লীগ নেতা বহুল আলোচিত তুফান সরকার অর্থপাচার মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন।  তার জামিন প্রশ্নে জারি করা রুলের যথাযথ ঘোষণা করে বুধবার এই আদেশ দেন বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি একেএম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ। তবে রাষ্ট্রপক্ষ জানিয়েছে, এ আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী রফিকুল ইসলাম সোহেল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।
উল্লেখ্য চলতি বছরের ২৯ অক্টোবর এ মামলা করেন সিআইডির উপ-পরিদর্শক মো. সফিউল আলম। মামলায় অবৈধ মাদক ও নেশা জাতীয় দ্রব্যের ব্যবসার মাধ্যমে মোট ৩৩ লাখ ৩৪ হাজার টাকা স্থানান্তর ও রূপান্তর করার অভিযোগ আনা হয়।
এদিকে বগুড়ায় এক কিশোরীকে ধর্ষণ এবং ওই কিশোরী ও তার মাকে নির্যাতনের পর মাথা ন্যাড়া করে দেওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার হয়ে জেলে রয়েছেন তুফান সরকার।
ধর্ষণের শিকার কলেজে ভর্তিচ্ছু ওই ছাত্রীর মা গত ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই বগুড়া সদর থানায় মামলা করেন। এজাহারে তিনি উল্লেখ করেন, ভালো কলেজে ভর্তি করে দেওয়ার নামে তুফান সরকার তার মেয়েকে শহরের চকসূত্রাপুরের বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে তুফানের স্ত্রী, বোন, মা ও অন্যরা মেয়েটি এবং তার মাকে নির্যাতন করেন এবং নাপিত ডেকে এনে তাদের মাথা ন্যাড়া করে দেয়। এ ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। পুলিশ পর্যায়ক্রমে তুফান সরকারসহ অন্য আসামিদের গ্রেফতার করে। তুফান সরকারকে শ্রমিক লীগ থেকে এবং তার ভাই মতিন সরকারকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। মামলার অন্য আসামিরা গ্র্রেফতারের পর জামিনে ছাড়া পেলেও তুফান সরকার এখনো জেলে আছেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়