বগুড়ায় আরও ১৭ জনকে আওয়ামী লীগ থেকে অব্যাহতি

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে বগুড়ায় নৌকার বিরুদ্ধে ভোট করায় ১৭ জন নেতাকর্মীকে আওয়ামী লীগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েল প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে জানানো হয়।
অব্যাহতি পাওয়া নেতাকর্মীদের মধ্যে বগুড়া সদর উপজেলার তিন ইউনিয়নের চারজন, শাজাহানপুর উপজেলার চার ইউনিয়নে পাঁচজন ও ধুনট উপজেলার চার ইউনিয়নের আটজন। এর আগে, দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে নৌকার বিরুদ্ধে কাজ করায় ১৩ নেতাকর্মীকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছিল।
বগুড়া সদর উপজেলায় অব্যাহতি পাওয়া নেতাকর্মীরা হলেন-নুনগোলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বদরুল আলম, গোকুল ইউনিয়নে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক একে এম কাওছার আলী এবং আওয়ামী লীগের সমর্থক জিয়াউর রহমান জিয়া, শাখারিয়া ইউনিয়নে যুবলীগের সভাপতি নাজমুল হাসান শামীম। শাজাহানপুর উপজেলার মাদলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম সোহাগ, খোট্টাপাড়া ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবু সুফিয়ান সুমন, আমরুল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম বিমান, ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য আতিকুল ইসলাম রাহুল, আশেকপুর ইউনিয়নে বগুড়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুর্যোগ ও ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক হয়রত আলী।
ধুনট উপজেলায় ধুনট সদর ইউনিয়নে সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মন্টু, আওয়ামী লীগ সমর্থক আলমগীর বাদশা, এলাঙ্গী ইউনিয়নের সভাপতি এম এ তারেক হেলাল, আওয়ামী লীগ সমর্থক মাসুদ রানা, নিমগাছী ইউনিয়নে ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবাব আলী, চিকাশী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সমর্থক আরিফুর রহমান ও আব্দুর রাজ্জাক আকন্দ।
বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েল জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু ও সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপুর নির্দেশক্রমে তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয়। দলীয় শৃঙ্খলা অমান্য করায় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়া অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে দলীয় শৃঙ্খলা অমান্য করায়, তালিকায় উল্লেখিত নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটি বরাবর সুপারিশসহ অনুরোধ করা হয়।


আরও পড়ুন