স্বতন্ত্র প্রার্থীর অফিস পাহারা দেয়ায় বৃদ্ধকে মারপিট করে মাথার চুল কেটে দিল নৌকার কর্মীরা!

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৭:৪২ পিএম, ০৪ নভেম্বর ২০২১

শেরপুর (বগুড়া): বগুড়ার শেরপুরে ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর অফিস পাহারা দেওয়ায় কবেজ উদ্দিন (৬২) নামে এক বৃদ্ধকে মারপিট করে মাথার চুল কেটে দিয়েছে নৌকার কর্মীরা। দুইদিন আগে চুল কেটে দেওয়ার ঘটনা ঘটলেও তিনি থানা পুলিশে অভিযোগ দেওয়ার সাহস পাননি।
বুধবার (৩ নভেম্বর) বিকেলে কবেজ উদ্দিন চুল কেটে দেওয়ার ঘটনার বর্ণনা দেন। কবেজ উদ্দিন শেরপুর উপজেলার কুসম্বি ইউনিয়নের কেল্লা হঠাৎপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।
তিনি বলেন, গ্রামের বাজারে তিনি হোটেল এবং মুদি দোকান করে জীবিকা নির্বাহ করেন। ছোট বেলা থেকেই তিনি মাজার ভক্ত হওয়ায় মাথার চুল কাটেন না। একারণে তার মাথায় লম্বা জটা চুল রয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে তার হোটেলের সামনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ আলম পান্নার আনারস মার্কার নির্বাচনী অফিস করেছেন। কবেজ উদ্দিন হোটেলে রাত যাপন করে নির্বাচনী অফিস পাহারা দেন। তিনি অভিযোগ করেন সোমবার (১ নভেম্বর) দিবাগত রাতে হোটেলে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত ১টার দিকে একই গ্রামের নৌকা মার্কার কর্মী সাইফুল, স্বপন, রুবেল ওবাইদুলসহ কয়েকজন তাকে ঘুম থেকে ডেকে তোলে। এরপর হোটেলের বাহিরে বের করে আনারস মার্কার অফিস পাহারা দেওয়ার জন্য তাকে মারধর করে মাথার জটা চুল কেটে দেয়। পরে আনারস মার্কার পোস্টার ছিড়ে ফেলে দিয়ে চলে যায়।
তিনি বলেন, যারা মারধর করে তার চুল কেটে দিয়েছেন তারা সবাই আওযামী লীগ করে এবং নৌকা মার্কার প্রার্থী জুলফিকার আলী সঞ্জুর কর্মী। পুলিশের কাছে অভিযোগ করলে প্রাণে মেরে ফেলার ভয় দেখানোর কারণে তিনি পুলিশকে জানানোর সাহস পাননি।
শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনা তার জানা নাই। এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও পড়ুন