বগুড়ায় সিএনজিচালক খুন, আ.লীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৮:৫১ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়া সদর উপজেলায় খাসজমি মাপাকে কেন্দ্র করে বিরোধের জেরে আওয়ামী লীগ নেতার ছেলের ছুরিকাঘাতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার এক চালক খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের রহমতবালা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত ব্যক্তির নাম জাহের আলী প্রামাণিক (৪০)। এ ঘটনায় একই পরিবারের আরও তিন সদস্য আহত হয়েছেন। আহত ব্যক্তিরা হলেন জাহের আলীর প্রামাণিকের ভাই বাদল প্রামাণিক (৪৮), বাদল প্রামাণিকের ছেলে ইসলাম প্রামাণিক (২০)ও তাহের আলী প্রামাণিক (৩২)। আহত ব্যক্তিদের বগুড়ার টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
নিহত ব্যক্তির পরিবারের অভিযোগ, উপজেলার লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূর আমিনের ছেলে সজীব মিয়ার (২০) ছুরিকাঘাতে জাহের আলী প্রামাণিক নিহত হয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, জাহের আলীর বাড়িসংলগ্ন ২ শতক আয়তনের একখণ্ড খাসজমি আছে। ওই জমিতে জাহের আলীর পরিবার খড় রাখাসহ নানা কাজে ব্যবহার করে আসছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতা নূর আমিন ওই খাসজমির মালিকানা দাবি করে জাহের আলীর সঙ্গে বিরোধে জড়ান। আজ সকালে জমি মাপার জন্য উভয় পক্ষই সার্ভেয়ার ডাকে। জমি মাপার একপর্যায়ে সীমানা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা বাধে। একপর্যায়ে নূর আমিনের ছেলে সজীব মিয়া জাহের আলী ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের ওপর ছুরি নিয়ে অতর্কিতে হামলা করেন।
এ সময় সজীব মিয়ার ছুরির আঘাতে ঘটনাস্থলে জাহের আলী, তাঁর দুই ভাই ও ভাতিজা আহত হন বলে জাহের আলীর পরিবার দাবি করে। পরে স্থানীয় লোকজন আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে নিলে সেখানকার চিকিৎসক জাহের আলীকে মৃত ঘোষণা করেন।
বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, জমি নিয়ে নূর আমিন ও আবু জাহেরের বিরোধ ছিল। সেই জমি মাপার সময় দুই পক্ষের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডার একপর্যায়ে বিরোধীপক্ষের হামলায় আবু জাহের নিহত হয়েছেন। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোনো হত্যা মামলা হয়নি। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত নূর আমিন ও তাঁর ছেলে সজীব গা ঢাকা দিয়েছেন।
বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, নূর আমিন লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। খাসজমি দখল বা হত্যাকাণ্ডে নূর আমিন জড়িত প্রমাণিত হলে তাঁর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও পড়ুন