বগুড়ায় কঠোর লকডাউন শুরু

শপিংমল, মার্কেট, দোকান, অনুষ্ঠান, গণজমায়েত বন্ধ
BoguraProdip BoguraProdip
প্রকাশিত: ০৯:১২ পিএম, ১৯ জুন ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার : বগুড়ায় করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধকল্পে আজ রোববার থেকে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। বগুড়া জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক আজ শনিবার গণ বিজ্ঞপ্তি প্রচার করেছেন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় করোনাভাইরাস সংক্রমণের ফলে সৃষ্ট পরিস্থিতি বিবেচনায় শনিবার রাত ১২টা থেকে ২৬ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত বগুড়া পৌরসভাসহ সদর উপজেলায় সর্বাত্মক কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করা হলো। 
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় এই বিধি নিষেধের আওতায় সকল ধরনের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, শপিংমল, মার্কেট, দোকান বন্ধ থাকবে। তবে ওষুধ, কাঁচা বাজার, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন, সৎকারের সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠান এর আওতামুক্ত থাকবে। এছাড়াও খাবারের দোকান ও হোটেল রেঁস্তোরাসমুহ সকাল ৬ টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খাদ্য বিক্রয় সরবরাহ করতে পারবে। বিধি নিষেধ চলাকালে বাসসহ কোন প্রকার যানবাহন বগুড়া শহরে প্রবেশ করতে এবং বগুড়া শহর হতে বাইরে যেতে পারবে না। দূর-পাল্লার যানবাহন শুধু হাইওয়ে ব্যবহার করবে। কঠোর বিধি নিষেধ আরোপিত এলাকায় সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে এ্যাম্বুলেন্স, স্বাস্থ্যসেবার সঙ্গে সম্পর্কিত পরিবহন ও ব্যক্তিগত বাহন ও কৃষিপণ্য খাদ্যসামগ্রী পরিবহন নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। কঠোর লকডাউন চলাকালে বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার, অনুষ্ঠান, গনজমায়েত করা যাবে না। 
শহরের সাপ্তাহিক সকল হাট বন্ধ থাকবে এ ছাড়াও সকল পর্যটন স্থল, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার, বিনোদন কেন্দ্র, সব ধরনের চায়ের দোকান, ফুটপাতের দোকান বন্ধ থাকবে। শিল্প কারখানা স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় চালু থাকবে বলে জানানো হয়েছে। 
এদিকে বগুড়ায় কঠোর বিধিনিষেধকে কার্যকর করতে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সভা করেছে জেলা প্রশাসন। শনিবার বগুড়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ করতোয়ায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সালাহ উদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফয়সাল মাহমুদ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাছিম রেজা, বগুড়া পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম বাদশা, প্যানেল মেয়র পরিমল চন্দ্র দাস, পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কবিরাজ তরুণ কুমার চক্রবর্তী, বগুড়া চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ সভাপতি এনামুল হক দুলাল, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের মাঝে আকবরিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান হাসান আলী আলাল, রেজাউল বারী ঈসা, এ্যাডোনিস তালুকদার বাবু প্রমুখ। সভায় বিভিন্ন মার্কেট ও ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বলা হয় জরুরী নিত্যপণ্য বিশেষ করে কাঁচাবাজার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা থাকবে। এ নির্দেশনা অমান্য করলে সংশ্লিষ্ট বাজার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে বাজার ব্যতিত রেল-লাইনের উপর, ফুটপাতে ও অন্যান্য স্থানে বাজার বসানো যাবে না। চার্জার ব্যাটারিচালিত কোন যানবাহন যাতে শহরে বের করতে না পারে তার জন্য পৌর কাউন্সিলরদের প্রতি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি চার্জার গ্যারেজ বন্ধ রাখতে কাউন্সিলরবৃন্দকে মনিটরিং করতে অনুরোধ জানানো হয়। করোনা রোধকল্পে কঠোর বিধিনিষেধ কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসন কঠোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে বলে জানানো হয়। 


আরও পড়ুন