উপবৃত্তির নামে ভুয়া এসএমএস

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়ার নন্দীগ্রামে উপবৃত্তির টাকা দেওয়া হচ্ছে এমন তথ্য জানিয়ে বিভিন্ন মোবাইল নম্বর দিয়ে ভুয়া মেসেজ (এসএমএস) পাঠানো হচ্ছে। সংশ্লিষ্টরা ধারণা করছেন, প্রতারণার উদ্দেশ্যেই এমন মেসেজ পাঠানো হতে পারে।
জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা যাদের ব্যাংক হিসাবে দেওয়া আছে তাদের উপবৃত্তি টাকা সরাসরি ব্যাংকে জমা হয়। আর যাদের ব্যাংক হিসাব নেই তাদের টাকা বিভিন্ন মোবাইল ফিনান্সিয়াল সেবা (বিকাশ, নগদ, রকেট) ইত্যাদি ব্যবহার করে পাঠানো হয়। সরাসরি মোবাইল নম্বর থেকে এভাবে কল বা এসএমএস পাঠিয়ে দেওয়া হয় না।
এদিকে গত বৃহস্পতিবার পৌর এলাকার জুথী রানীর মোবাইলে এমন একটি মেসেজ এসেছে। তাতে লেখা রয়েছে ‘প্রিয় স্টুডেন্ট, তোমাদের উপবৃত্তির টাকা দেওয়া হচ্ছে ৪২০০ টাকা। যোগাযোগ: ০১৮১৯১৩৭২৫২।’ ওই মেসেজটি পাঠানো হয় ০১৮৩১৮৩৮০৫৩ নম্বর থেকে। তবে জুথী রানী সরকারি আজিজুল হক কলেজের ইংরেজি বিভাগের স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী।
পরে ০১৮১৯১৩৭২৫২ এই নম্বরে একাধিকবার কল করলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়। তাছাড়া যে নম্বর থেকে মেসেজ এসেছে ওই নম্বরে একাধিকবার কল করলে সেটিও বন্ধ পাওয়া যায়।
পৌর এলাকার কুবির চন্দ্র জানান, বগুড়া বিএম মডেল হাইস্কুলে সহকারী শিক্ষক হিসেবে চাকরি করেন তিনি। এমন মেসেজ তার মোবাইলেও এসেছে। তবে নম্বর আলাদা ছিল।
উপবৃত্তির এমন এসএমএস চাকরিজীবী থেকে শুরু করে সবধরনের মানুষকে দেয়া হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, প্রতারণার উদ্দেশ্যেই এমন মেসেজ পাঠানো হতে পারে।
নন্দীগ্রাম মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী আজম জানান, এমন মেসেজের কথা শুনেছি। আমার মনে হয় প্রতারণার উদ্দেশ্যেই এসএমএস পাঠানো হচ্ছে।
জানতে চাইলে নন্দীগ্রাম উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল কাইয়ুম বলেন, এগুলো ভুয়া এসএমএস। যাদের টাকা আসবে এমনিতেই চলে আসবে। কোনো ধরনের মেসেজ পাঠানো হবে না। এসএমএসের খপ্পরে পড়ে প্রতারিত না হওয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।


আরও পড়ুন