দূতাবাসে সেবার বদলে হয়রানির অভিযোগ প্রবাসীদের

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০১:২২ পিএম, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: প্রবাসে বসবাসরত বাংলাদেশিরা দূতাবাসগুলোর কাছ থেকে সেবার বদলে নানা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। যারা দেশে বিপুল পরিমাণ রেমিটেন্স পাঠাচ্ছেন তারা হয়রানির শিকার হওয়ায় রেমিটেন্স প্রবাহ হুমকির মধ্যে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

প্রবাসীদের অভিযোগ- দূতাবাসে সেবার বদলে নানারকম হয়রানি মেলে। মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে আছে দালাল চক্রের দৌরাত্ম। রেকর্ড ভেঙে একের পর এক নতুন রেকর্ড গড়েই চলেছে-রেমিট্যান্স। করোনা মহামারিতেও গেল বছরের চেয়ে ৪১ শতাংশ বেশি টাকা পাঠিয়েছেন প্রবাসী শ্রমিকরা। বিদেশের মাটিতে কর্মীদের রাষ্ট্রীয় অভিভাবক সে দেশে থাকা বাংলাদেশি দূতাবাস। বাংলাদেশি নাগরিকদের সেবা দেয়ার পাশাপাশি সে দেশের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার, শিল্প-বাণিজ্যে সহায়তা তাদের মূল দায়িত্ব। কিন্তু সেবার মান নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে প্রবাসীদের।

সৌদি আরবের এক প্রবাসী জানান, সৌদিতে বাংলাদেশের দূতাবাস আমাদের পাত্তা দিতে চায় না। হেল্প তো দূরের কথা কোন কাজ করতে গেলে দালালের মাধ্যমে হয়রানি হতে হয়। চাকরির পাশাপাশি অনেক প্রবাসীই ব্যবসা করতে চান। করতে চান বাংলাদেশি বিভিন্ন পণ্যের ব্র্যান্ডিং। কিন্তু অন্যান্য দেশের দূতাবাসের মত বাংলাদেশের দূতাবাসের সহযোগিতা না পাওয়ার অভিযোগ তাদের। মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি এক প্রবাসী বলেন, আমরা যারা বাংলাদেশি ও মালয়েশিয়ার সঙ্গে এক্সপোর্ট ও ইমপোর্টের ব্যবসার সঙ্গে জড়িত, কোন ধরনের সাহায্য ও সহযোগিতার জন্য গেলে নানা ধরনের হয়রানি শিকার হই।

প্রবাসী শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করা সংগঠন-রামরুর জরিপ বলছে, ১৯ ভাগ মানুষ বিদেশে যাওয়ার আগে প্রতারিত হন। বিদেশে যাওয়ার পর প্রতারণার শিকার হন ৩১ ভাগ। সরকারি বেসরকারি মাধ্যমে প্রতি বছর যান ২০ লাখের মতো। অনেকেই ফিরেও আসেন নানা জটিলতায়। রামরুর পরিচালক মেরিনা সুলতান বলেন, প্রবাসীরা দেশের জন্য যে অবদান রাখছে তার ভিত্তিতে তাদের মূল্যায়ন করার সময় এসেছে।

এদিকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন,  দূতাবাসের সেবার মান বাড়াতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, কিছু জায়গায় আমরা অভিযোগ পেয়েছি। দূতাবাস কেন্দ্রিক কিছু চক্র গড়ে ওঠে। এর আগে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছি। গত কয়েক বছর আমরা দেখেছি। আমাদের এ কাজগুলো অব্যাহত থাকবে। বিশ্বের ১৭২ দেশে সোয়া কোটির বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি আছেন। যাদের সেবা দিতে ৫৮টি দেশে ৭৭টি মিশন কাজ করে।