৭ নভেম্বর উপলক্ষে বিএনপির দুইদিনের কর্মসূচি

DhakaNANDI DhakaNANDI
প্রকাশিত: ০৮:৫৯ পিএম, ০৩ নভেম্বর ২০২১

# বড় ভাই নৌকা না পাওয়ায় মনঃক্ষুণ্ন সিইসি : রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা অফিস : প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ৭ নভেম্বর ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ পালন করবে বিএনপি। দিবসটি উপলক্ষে এবার দুইদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি। 

বুধবার (০৩ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন। 

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-৭ নভেম্বর সকাল ৬টায় নয়াপল্টনস্থ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারাদেশে দলীয় কার্যালয়গুলোতে দলীয় পতাকা উত্তোলন, বেলা ১১টায় রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে দলের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও দোয়া। এছাড়া ৬ নভেম্বর দুপুর ২টায় গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। 

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে দলের পক্ষ থেকে ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে। ইতোমধ্যে দলের পক্ষ থেকে পোস্টার প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়াও দলের অঙ্গ-সহযোগী এবং পেশাজীবী সংগঠনগুলো দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। অনুরূপভাবে দেশব্যাপী জেলা, মহানগর ও উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে স্থানীয় সুবিধানুযায়ী দিবসটি উপলক্ষে আলোচনা সভাসহ অন্যান্য কর্মসূচি পালিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, সরকারের লোকজন এখন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে নিজেরাই কামড়া-কামড়ি, মারামারি করে মরছে আর গ্রামীণ জনপদে সাধারণ মানুষের শান্তি বিনষ্ট করছে। চলমান ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শুরু থেকে এ পর্যন্ত ২২ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। পত্রপত্রিকার খবর অনুযায়ী, আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা ঢাকায় বসে টাকার বিনিময়ে প্রকাশ্যে মনোনয়ন বাণিজ্য করছে আর প্রার্থীরা গ্রাম-গঞ্জে গিয়ে মারামারিতে লিপ্ত হচ্ছে। এর অন্তর্নিহিত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে-লুটপাটের লোভ। 

তিনি বলেন, সিইসি কেএম নূরুল হুদা তার আপন বড় ভাই আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহের খান পটুয়াখালীর বাউফলের নওমালা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে নৌকা প্রতীক না পাওয়ায় বেজায় মনঃক্ষুণ্ন হয়েছেন। তাই সেখানে নৌকার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করা আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাদা হাওলাদারের পক্ষে তিনি প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির আব্দুস সালাম, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, মীর সরফত আলী সপু, আব্দুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, তাঁতী দলের আবুল কালাম আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের ডা. জাহিদুল কবির জাহিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


 


আরও পড়ুন