অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ০৩:৫৯ পিএম, ০২ আগষ্ট ২০২০

কক্সবাজারের টেকনাফে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তার মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত চলছে, এরপরই ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। রোববার রাজধানীর ধানমন্ডিতে এক ব্রিফিংয়ে একথা জানান তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সাবেক সেনা সদস্য নিহতের ঘটনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। যেখানে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে একজন প্রতিনিধি, পুলিশ বাহিনীর পক্ষ থেকে একজন প্রতিনিধি এবং সামরিক বাহিনীর একজন প্রতিনিধি রয়েছেন।

তাদের সময় নির্ধারণ করে দিয়েছি আমরা। তারা বস্তুনিষ্ঠ তদন্ত প্রকাশের পরই এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানানো যাবে। এর আগে এ বিষয়ে মন্তব্য করলে তা তদন্তের ওপর প্রভাব ফেলবে। তাই এখনই এ বিষয়ে কিছু বলতে চাই না।

তিনি বলেন, দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তা অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে। তারা কাজ করছেন বলেই দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় আছে। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রস্তুত।

গত শুক্রবার রাতে টেকনাফে পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা রাশেদ খানের মৃত্যু হয়। পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বাহারছড়ায় কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর পুলিশ তল্লাশি চেকপোস্টে এই ঘটনা ঘটে।

ওই সাবেক সেনা কর্মকর্তা তাঁর ব্যক্তিগত গাড়িতে করে অপর একজন সঙ্গীসহ টেকনাফ থেকে কক্সবাজার আসছিলেন। তল্লাশি চেকপোস্টে পুলিশ গাড়িটি থামিয়ে তল্লাশি করতে চাইলে অবসরপ্রাপ্ত ওই সেনা কর্মকর্তা বাধা দেন।

পুলিশের দাবি, এই নিয়ে তর্কবিতর্কের একপর্যায়ে অবসরপ্রাপ্ত ওই সেনা কর্মকর্তা পিস্তল বের করলে পুলিশ গুলি চালায়। এতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা রাশেদ গুরুতর আহত হন। তাঁকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।


আরও পড়ুন