আরও একজনের প্রাণ কেড়ে নিলো সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ি

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৬:০৪ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২১

মাত্র একদিনের ব্যবধানে রাজধানীতে সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারিয়েছেন আরও একজন।

নিহতের নাম- আহসান কবীর খান (৪৫)। তিনি প্রথম আলোর সাবেক কর্মী। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নিহত হন তিনি।


বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে রাজধানীর পান্থপথে বসুন্ধরা সিটির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

প্রত্যক্ষদর্শী বসুন্ধরা শপিং মলের কর্মী রানা  বলেন, আমি রাস্তা পার হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এরই মধ্যে দেখলাম মোটরসাইকেল আরোহীকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ি চাপা দেয়।

 

নিহতের স্ত্রী নাদিরা বেগম (রেখা) বলেন, ব্যবসার কাজে মিরপুরে যেতে বেলা ১১টার দিকে বাসা থেকে বের হয়েছিলেন তার স্বামী। এরপর তিনি দুর্ঘটনার খবর পান।


তিনি জানান, তার স্বামী প্রথম আলোর প্রেসে ১৭ বছর চাকরি করেছেন। গার্মেন্টস এক্সেসরিজের ব্যবসা করতেন।

কলাবাগান থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম রব্বানী বলেন, আমরা আশপাশের লোকজনের মুখে জানতে পারি, মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন আহসান কবীর। এসময় উত্তর সিটি করপোরেশন ময়লার গাড়িটি তাকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। পরে ওই গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মারা যান আহসান কবীর। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

 বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক ধানমন্ডি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মো. জাহিদ আহসান।

ঘটনাস্থলে থাকা কলাবাগান থানার ওসি (তদন্ত) আসাদ  বলেন, তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। নিহত ব্যক্তির গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠি।

এর আগে বুধবার (২৪ নভেম্বর) গুলিস্তানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হন। এ নিয়ে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। তারা সহপাঠী নিহতের বিচার ও নিরাপদ সড়কের দাবি জানিয়ে আসছেন।


আরও পড়ুন