নটর ডেম শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় মামলা

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০২:০৫ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২১

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় পল্টন মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহত শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের (১৭) বাবা শাহ আলম ডিএসসিসির গাড়িচালক রাসেল খানের (২৭) বিরুদ্ধে সড়ক পরিবহন আইনে মামলাটি করেন।
 

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) পল্টন মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাহউদ্দিন মিয়া সংবাদমাধ্যমকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
 
তিনি বলেন, বুধবার রাতে নিহতের বাবা শাহ আলম সড়ক পরিবহন আইনে ডিএসসিসির ময়লার গাড়িচালক রাসেল খানের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এই মামায় রাসেল ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার রয়েছেন। তাকে বৃহস্পতিবারই আমরা আদালতে পাঠাব। আদালতে রাসেলের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে।
 
সালাহউদ্দিন মিয়া বলেন, পল্টন মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) আ. আহাদ।
 
এদিকে নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় প্রকৃত আসামির বিচারের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো মতিঝিলের শাপলা চত্বরের সামনে অবস্থান নিয়েছেন নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা।
 

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বেলা সোয়া ১১টার দিকে তারা কলেজের সামনে জড়ো হন। এরপর সাড়ে ১১টা নাগাদ তারা শাপলা চত্বরের সড়কে অবস্থান নেন। এ সময় তারা ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ স্লোগান এবং ঘটনার প্রকৃত আসামির গ্রেপ্তার ও দ্রুত বিচার দাবি করেন।
 
শিক্ষার্থীরা রাস্তায় বসে পড়ে বিভিন্ন দাবিতে প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করছেন। তাদের অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- মানুষসহ সড়কের সব প্রাণীর নিরাপত্তা দিতে হবে, ২০১৮ সালের নিরাপদ সড়ক আইন বাস্তবায়ন করতে হবে, নাঈমের (গাড়িচাপায় নিহত) পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

আরও পড়ুন: শাপলা চত্বরে নটর ডেম শিক্ষার্থীদের অবস্থান
 
এ ছাড়া এ ঘটনায় বিচারের দাবিতে গুলিস্তানের সড়কে অবস্থান নিচ্ছেন কবি নজরুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাদের অবস্থানের কারণে এসব সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।
 
এর আগে বুধবার (২৪ নভেম্বর) এ শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় তার পরিবারকে সান্ত্বনা দিতে কামরাঙ্গীরচরের ঝাওলাহাটিতে যান আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এবং মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

নাঈমের বাড়িতে গিয়ে শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, আসলে সন্তানহারা বাবা-মাকে তো সান্ত্বনা দেওয়া যায় না। আমার নিজেরও দুই সন্তান। নিজেই উপলব্ধি করি, এটা কী রকম বেদনাদায়ক ও মর্মান্তিক ঘটনা, এই কষ্ট ভাষায় প্রকাশ করা যায় না।


ঘাতক চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি কামনা করে ডিএসসিসি মেয়র শেখ তাপস বলেন, এ রকম গাফিলতি, কোনো অন্যায় বরদাশত করা হবে না। আমরা এরই মাঝে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন থেকে ব্যবস্থা নেওয়া আরম্ভ করেছি। আমরা তদন্ত কমিটি করেছি এবং আমরা এরই মাঝে তাদের চিহ্নিত করেছি। তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা এবং প্রাতিষ্ঠানিক যে কার্যক্রম আছে সেগুলোও আমরা নেব। যাতে করে সুষ্ঠুভাবে বিচার সম্পন্ন হয় এবং সর্বোচ্চ শাস্তি যেন হয়, সেটাই আমরা কামনা করি।
 
ওইদিন মতিঝিল থানার ডিউটি অফিসার এসআই কলিমউদ্দিন সংবাদমাধ্যমকে বলেন, পুলিশ আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলছে। দুর্ঘটনায় জড়িত গাড়িচালককে আটক করা হয়েছে।
 
পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সালাউদ্দিন মিয়া বলেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে সংশ্লিষ্ট চালককে আটক করেছি। চালকের নাম রাসেল। মামলার প্রস্তুতি চলছে। গাড়িটিও জব্দ করা হয়েছে।
 
বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তানের গোলচত্বরে হল মার্কেটের সামনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। ওই শিক্ষার্থীর নাম নাঈম হাসান (১৭)। সে কলেজের মানবিক শাখার দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।
 
দুর্ঘটনার পর পথচারীরা ওই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুপুর সোয়া ১২টায় মৃত ঘোষণা করেন।
 


আরও পড়ুন