অচিরেই ফাইনাল খেলা : প্রিন্স

প্রকাশিত: জানুয়ারী ০৫, ২০২২, ০৯:১৬ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ০৫, ২০২২, ০৯:১৬ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

করতোয়া ডেস্ক : বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে দেশব্যাপী জেলা ও বিভাগীয় সমাবেশের কথা উল্লেখ করে বিএনপির ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেছেন, সরকারের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে প্রতিটি সমাবেশে লক্ষ লক্ষ মানুষের বাঁধভাঙ্গা জোয়ার প্রমাণ করে- তারা এই সরকারকে চায় না। 

তিনি আরও বলেন, জনগণকে সাথে নিয়ে আমরা সেমিফাইনাল খেলে সরকারকে হলুদ কার্ড দেখাচ্ছি। সরকার পদত্যাগ করে নির্দলীয়-নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের পথ সুগম না করলে অচিরেই ফাইনাল খেলা হবে। তখন সরকার পালাবার পথ খুঁজে পাবে না।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের অষ্টম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বুধবার (০৫ জানুয়ারি) ময়মনসিংহের নতুন বাজারে প্রতিবাদী মানববন্ধনে এসব কথা বলেন প্রিন্স। ওই নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি প্রতি বছর দিনটি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করে। ময়মনসিংহ মহানগর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির উদ্যোগে অনুষ্ঠিত দুইটি মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন এমরান সালেহ প্রিন্স।

ময়মনসিংহ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক আবু ওয়াহাব আকন্দের পরিচালনায় মহানগর বিএনপির মানববন্ধনে ময়মনসিংহ মহানগর বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক অধ্যাপক শেখ আমজাদ আলী বক্তব্য রাখেন। 

অন্যদিকে ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক আলমগীর মাহমুদ আলমের সভাপতিত্বে এবং শুক্কুর মাহমুদ ববির পরিচালনায় দক্ষিণ জেলা বিএনপির মানববন্ধনে জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক ফখর উদ্দিন বাচ্চু, আখতারুল আলম; সদস্য হেলাল আহমেদ, জেলা যুবদলের সভাপতি রোকনুজ্জামান সরকার রোকন, শ্রমিক দলের সভাপতি আবু সাঈদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শহীদুল আমন খসরু, কৃষক দলের সভাপতি সাদেকুর রহমান, ছাত্রদলের সভাপতি মাহবুবুর রহমান রানা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মানববন্ধনে এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, সরকার জনগণকে ভয় পায় বলেই ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। সরকারের দুঃশাসনে জনগণ অতিষ্ঠ। তারা এই সরকারকে আর এক মুহূর্তও ক্ষমতায় দেখতে চায় না। 

বিএনপির এই নেতা অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবি পুনরায় উল্লেখ করে বলেন, দেশনেত্রীর কিছু হলে সরকারকেই এর জন্য দায়ী থাকতে হবে।
 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়