কোলে সন্তান-কাঁধে বন্দুক নিয়ে পালন করলেন দায়িত্ব পালন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০৬, ২০২১, ০৫:০৯ বিকাল
আপডেট: ডিসেম্বর ০৬, ২০২১, ০৫:০৯ বিকাল
আমাদেরকে ফলো করুন

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে সারাদেশেই চলছে বৃষ্টি, তার ওপর আবার ঠান্ডার প্রকোপ। বড়দের জন্য কিছুট সহনীয় হলেও শিশুদের জন্য সময়টা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। কোলের শিশুদের এসময়ে মায়ের কাছে থাকাটা গুরুত্বপূর্ণ হলেও কর্মজীবী মায়েদের জন্য তা কষ্টসাধ্যই বটে। আর তা যদি হয় পুলিশের চাকরি তাহলে দায়িত্ব সামলানোর পাশাপাশি সন্তান সামলানো বেশ দূরুহ ব্যাপারই।
তবে সেই কষ্টাসাধ্য কাজটিই করেছেন ময়মনসিংহের ভালুকা থানার এক নারী পুলিশ সদস্য।আজ সোমবার সকালে তাকে দেখা যায় থানায় দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি পালন করছেন মায়ের দায়িত্ব। রাইফেল কাঁধে রেখেই পরম মমতায় বুকে আগলে রেখেছেন শিশুসন্তানকে। 
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এমন দৃশ্যের একটি ছবি পোস্ট করেছেন ভালুকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সালমা ইসলাম। 
ইউএনও ভালুকা নামে ফেসবুক আইডিতে দেওয়া স্ট্যাটাসটিতে সালমা ইসলাম লেখেন, “সকালে এইচএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন দিতে ভালুকা মডেল থানায় গিয়ে অন্যরকম দৃশ্য চোখে পড়ল। এক নারী পুলিশ সদস্য তার আট মাসের সন্তানকে বুকে আগলে রেখেছেন। এমনিতেই শীতকাল, তার ওপর গতকাল থেকে ঝুম বৃষ্টি হচ্ছে। সেজন্য শিশুটিও মায়ের উষ্ণ কোলের মধ্যে গুটিসুটি মেরে জড়িয়ে আছে। ছবিটি ফেসবুকে দেওয়ার কারণ একটাই। সেটা হলো সবাই দেখুক যে কাঁধে অস্ত্র, হাতে ট্রেজারির চাবি আর বুকে বাচ্চা নিয়ে সমানভাবে দায়িত্ব পালন করা কেবলমাত্র একজন নারীর পক্ষেই সম্ভব।”
ছবিটি পোস্ট করার পরই সেটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে নেটিজেনরা নারীদের দায়িত্ববোধের প্রশংসা ও শ্রদ্ধা জানিয়ে মন্তব্য করছেন।
মাহমুদা সুলতানা নামে এক নারী লিখেছেন, “এজন্যই তো নারীরা সব কাজে সমান দায়িত্ব শুধু নয়, একনিষ্ঠভাবে কাজ করে পুরুষের সমকক্ষ হয়ে। অনেক ক্ষেত্রে পুরুষের চেয়ে বেশি সফলতা অর্জন করে। একজন নারী তার জীবন চলার পথে জীবনযুদ্ধে লড়াই করে টিকে থাকে।”

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়