শীতে পায়ের বাড়তি যত্ন  

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ০৩:৩০ দুপুর
আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ০৩:৩০ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

শীতে পায়ের যত্ন একটু সতর্ক হলেও পায়ের রুক্ষতা সারিয়ে তোলা যায় বাড়িতে বসেই। সপ্তাহে অন্তত একদিন বাড়িতেই পেডিকিওর করুন। এটি করতে একটি বড় পাত্রে গরম পানি নিন, পরে সে পানিতে শ্যাম্পু মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রাখুন। এতে মরা চামড়া উঠে যাবে।

শীতকাল শুরু হতেই অনেকের শরীরে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। ফলে এ সময়টিতে শরীরের বাড়তি যত্ন নিতে হয়। হাত, মুখ, ঠোঁটসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের পাশাপাশি পায়ের যত্নেও হতে হয় অধিক মনোযোগী। এ সময় পায়ে সবচেয়ে বেশি যে সমস্যাগুলো দেখা দেয়, সেগুলো হলো পা ফাটা, চামড়া ওঠা ও অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়া।

এসবের ফলে যন্ত্রণা হওয়ার পাশাপাশি জুতা পরতে বা হাঁটতে হয় সমস্যা। তবে কিছু নিয়ম মানলে বাড়িতে বসেই এসব সমস্যা দূরে রাখতে পারবেন।

পেডিকিওর
সপ্তাহে অন্তত একদিন বাড়িতেই পেডিকিওর করুন। এটি করতে একটি বড় পাত্রে গরম পানি নিন, পরে সে পানিতে শ্যাম্পু মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রাখুন। এতে মরা চামড়া উঠে যাবে। গরম পানিতে অল্প মধুও মিশিয়ে নিতে পারেন। মধু মেশানো পানিতে পা ডুবিয়ে রাখলে মরা চামড়া ওঠার পাশাপাশি পায়ের ত্বক অনেক নরম থাকবে। এছাড়া গোসলের পর পায়ের চারপাশে বডি অয়েল বা অলিভ অয়েল ম্যাসাজ করতে পারেন। এ ধরনের অয়েল ত্বক সুস্থ রাখে।

মোজা পরুন
শীতের সময়টাতে মোজা পরে থাকার চেষ্টা করুন। কোনো কারণে বাইরে গেলে মোজা পরতে ভুলবেন না। এতে পায়ের ত্বক রুক্ষ হওয়া থেকে রক্ষা পাবে। ত্বক যদি বেশি শুষ্ক ও রুক্ষ হয় তাহলে ভালো ফুট ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। এতে বেশি উপকার পাওয়া যাবে।

গ্লিসারিন ম্যাসাজ
অতিরিক্ত পা ফাটার সমস্যা সমাধান করতে প্রতিরাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পানিতে গ্লিসারিন মিশিয়ে ম্যাসাজ করতে পারেন। এতে পা ফাটা বা চামড়া ওঠা রোধ করা যায়। সাধারণত শীতে আমরা পানি কম পান করি। তাই চেষ্টা করুন পরিমাণ মতো পানি পানের। তাহলে ত্বকসহ পায়ের চামড়াও শুষ্ক হবে না।

 

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়