বিয়ে যেন বেনারসি ছাড়া বেমানান

প্রকাশিত: আগস্ট ১৪, ২০২২, ০২:৫৭ দুপুর
আপডেট: আগস্ট ১৪, ২০২২, ০২:৫৭ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বেনারসি শাড়ি পছন্দ করেন না, এমন নারী খুঁজে পাওয়া যাবে না। বিয়ে যেন বেনারসি ছাড়া বেমানান। এই বেনারসি শাড়ির কিছু বৈশিষ্ট্য আছে, যা এই শাড়িকে করেছে অনন্য। একই রকম দেখতে হলেই বেনারসি হয়ে যায় না, জেনে নিন বেনারসি শাড়ি চেনার উপায়। 

* শাড়ি কেনার সময় শাড়িটি হাত দিয়ে ঘষে নিন। যদি আপনার হাতে গরম অনুভব হয়, তবে বুঝুন আপনি খাঁটি শাড়ি কিনছেন। কারণ বেনারসি খাঁটি সিল্ক সুতা দিয়ে তৈরি হয়। হাত দিয়ে ঘষলে তা গরম হয়ে যাবে। 

* বেনারসি শাড়ির আঁচলে ছয় ইঞ্চি থেকে আট ইঞ্চির প্যাচ থাকে। যা আপনি নকল বেনারসিতে পাবেন না। আসল শাড়ির আঁচল কাঁধের কাছে  পড়ে। 

* আসল বেনারসি শাড়ির জমিনের দুই পাশেই ঘন সুতার কাজ দেখতে পাবেন। যা নকল বেনারসি শাড়িতে থাকে না। নকল বেনারসির উল্টো পিঠ খসখসে হতে পারে।

* একটি বেনারসি শাড়ি তৈরির সময় একজন কারিগরের প্রায় এক মাস পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। অত্যন্ত উন্নত মানের সুতো ও সিল্ক দিয়ে তৈরি হয় এই শাড়ি। রুপালি ও সোনালি রঙের জরি সুতা দিয়ে এই বেনারসি শাড়ি বোনা হয়। হাত দিয়েই এর মান আর মসৃণতা বুঝা যায়। এর রঙই অন্যরকম হবে।

* বেনারসি শাড়ির মোটিফের দিকে নজর দিন। আসল বেনারসিতে মোঘল মোটিফ দেখা যায়। আমরু, দোমাক, আমবির মতো মোটিফ পাবেন। ফুলের নকশা পাবেন। কিন্তু নকল বেনারসিতে এগুলো পাবেন না।

* হাতের আংটি দিয়ে পরীক্ষা করতে পারেন। আসল সিল্ক হবে সুন্দর ও মলমলে। তাই এই আংটির ভিতর দিয়ে খুব সহজেই প্রবেশ করাতে পারেন এই বেনারসি শাড়ি। কিন্তু নকল শাড়ির ক্ষেত্রে তা না হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

* আসল বেনারসি হাতে বোনা এই জন্যই বেনারসি শাড়ির দাম বেশি হয়। কিন্তু নকল বেনারসি শাড়ি আপনি একটু কম দামে পেয়ে যেতে পারেন। তবে নকল বেনারসি শাড়ি বোনা হয় মেশিনে। তাই কম দামের বেনারসি কেনার আগে দশবার ভাববেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়