যে ৫ কারণে ভেঙে যেতে পারে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৪:৪২ এএম, ০১ মার্চ ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: সম্পর্কে টানাপোড়েন থাকবেই। তবুও সংসার সুখের করতে ত্যাগ সহ্য করতে হয়। কখনো হাসি, কখনো কান্না এ নিয়েই সংসার। পথে বহু বাঁক আসে, চড়াই-উতরাই পেরিয়ে এগিয়ে যেতে হয়।

সংসার টিকে থাকে দু’জন মানুষের ভালোবাসা ও বিশ্বাসের উপর। তবে কিছু আচরণ রয়েছে যা অবিশ্বাসের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। পরবর্তীতে সম্পর্কের ভিত উপড়ে ফেলে অবিশ্বাস। এজন্য সংসারে যতই ঝড় আসুক না কেন, কিছু আচরণ রয়েছে যেগুলো দীর্ঘদিনের সম্পর্কও নষ্ট করে দিতে পারে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কোন আচরণ?

ছোট-বড় কোনো কিছুই সঙ্গীর কাছ থেকে কিছু লুকাবেন না। সে টাকা-পয়সা হোক, ধার-দেনা হোক, পারিবারিক সমস্যা হোক, পুরোনো সম্পর্ক হোক কিংবা অন্য কিছু- কোনো বিষয়ই লুকাবেন না। এতে পরস্পরের মধ্যে অবিশ্বাস জন্মাতে পারে। যা সম্পর্কের ভিত নড়বড়ে করে দিতে পারে।

যত কঠিন বিষয় নিয়েই ঝগড়া হোক না কেন কখনো কথা বন্ধ করবেন না। দোষ বা ভুল যারই হোক, পরস্পর আলোচনার মাধ্যমে খোলাখুলি কথা বলে সমাধান করুন। কথা বন্ধ করে থাকলে দু’জনের প্রতি তিক্ততা আরও বেড়ে যাবে।

সিনেমা ও কল্পনার জগতকে কখনো বাস্তব বলে মনে করবেন না। এতে সংসারে অশান্তি হবে আর সম্পর্ক নষ্ট হবে। অনেকেই মনে করেন, তার স্বামী অমুক নায়কের মতো রোমান্টিক আচরণ করবে বা তার স্ত্রী অমুক নায়িকার মতো হবে! এসব অহেতুক ভাবনা নিয়ে কখনো অশান্তি করবেন না।

সঙ্গীর নামে অপরের কাছে কখনো নিন্দা করবেন না। খুবই খারাপ বিষয় এটি। নিজের বন্ধু বা আত্মীয়দের কাছে এতে সঙ্গীকে অপমানিত করা হবে। যখন সঙ্গী তার সম্পর্কে কোনো খারাপ কথা অন্যের মুখে শুনবে; তখন সম্পর্কের ভিত নষ্ট হয়ে যাবে। তাই এ বিষয়ে সাবধান থাকুন।

কখনো পুরনো রাগ-ক্ষোভ মনের মধ্যে জমিয়ে রাখবেন না। এতে এক পর্যায়ে মারাত্মক ঘটনা ঘটতে পারে। তাই যখনকার রাগ; তখনই ঝেড়ে ফেলুন। সবচেয়ে ভালো হয়, পরস্পরের মধ্যকার দোষ ও অভিযোগ নিয়ে কথা বলে মীমাংসা করা।