ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার হলেন ব্রিটিশ এমপি

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০১:২৯ পিএম, ০২ আগষ্ট ২০২০

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের এক সাবেক কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ার পর কনজারভেটিভ দলের এক সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রীকে জামিন দিয়েছেন আদালত। দ্য সানডে টাইমসের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।


ব্রিটিশ মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২০ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত চারটি ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা থাকার অভিযোগে কনজারভেটিভ দলের ওই সংসদ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তবে ওই কনজারভেটিভ দলের এক সংসদ সদস্যের নাম জানা যায়নি।

সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে ‘অত্যন্ত গুরুত্বের’ সঙ্গে দেখা হচ্ছে বলে কনজারভেটিভ দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

অভিযোগকারী নারীর বরাত দিয়ে দ্য সানডে টাইমস জানিয়েছে, অভিযুক্ত ওই সংসদ সদস্যের নির্যাতনের শিকার হয়ে ওই নারী এতটাই মানসিক বৈকল্য ও আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন যে তাঁকে চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে যেতে হয়েছিল।

মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনার তদন্তে নামে তারা।

এক বিবৃতিতে মেট্রোপলিটন পুলিশ বলে, ‘গত ৩১ জুলাই মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের চারটি ঘটনার অভিযোগ আসে।’

বিবৃতিতে বলা হয়, “‘২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২০ সালের জানুয়ারি সময়কালের মধ্যে ওয়েস্টমিনস্টার, ল্যাবমেথ ও হ্যাকনি এলাকায় এসব নির্যাতনের ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করা হয়।’

‘এরপর ধর্ষণের অভিযোগে গত শনিবার এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়, যাঁর বয়স ৫০-এর ঘরে। এরপর তাঁকে চলতি মাসের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়।’”

কনজারভেটিভ দলের এক মুখপাত্র এ বিষয়ে বলেন, ‘আমরা এ ধরনের অভিযোগ অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিই। যেহেতু বিষয়টি এখন পুলিশের হাতে, তাই এটা নিয়ে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না।’ 

জানা গেছে, কনজারভেটিভ পার্টির চিফ হুইপ মার্ক স্পেনসার তাঁর দলের এমপির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়ে জানতেন। এ ছাড়া অভিযোগকারী ওই নারীর সঙ্গে কথাও বলেছিলেন স্পেনসার।

তবে সূত্রের খবর, অভিযোগ যে এতটা ‘গুরুতর’, তা জানতেন না মার্ক স্পেনসার।

স্পেনসারের মুখপাত্র জানিয়েছেন, কনজারভেটিভ পার্টির চিফ হুইপ যৌন নির্যাতন ও নিপীড়নের অভিযোগকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন।