‘২০৩০-এর মধ্যে চাঁদে হবে মানুষের ঘরবাড়ি’!

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ০৮:৫০ রাত
আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১০:০২ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চাঁদের মাটিতে শেষবার মানুষ পা রেখেছিল অর্ধ শতাব্দী আগেই। এ বার সেখানে ঘর-বাড়ি বানিয়ে মানুষের বাসযোগ্য করে তোলার বন্দোবস্ত হতে চলেছে বলে আভাস দিল আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা। সম্প্রতি চাঁদে সফল ভাবে আর্টেমিস-১ মহাকাশযান নামিয়েছে নাসা। সেই ওরিয়ন চন্দ্রযান অভিযানের অন্যতম কারিগর হোয়ার্ড হু এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘২০৩০ সালের মধ্যে চাঁদে বসবাস শুরু করতে পারবে মানুষ।

আমরা চন্দ্রপৃষ্ঠে লোক পাঠাব। তাঁরা ওখানে থাকবেন। ওখানে থেকে বৈজ্ঞানিক গবেষণা করবেন।’’ সমস্ত প্রস্তুতি সত্ত্বেও গত কয়েক মাসে বার কয়েক শেষবেলায় আর্টেমিস-১-এর উৎক্ষেপণ থমকে গিয়েছিল। পরে সফল ভাবে অবতরণ করে চন্দ্রযানটি। তবে এ বার তাতে কোনও মানুষ পাঠানো হয়নি। এ বারের উৎক্ষেপণের লক্ষ্য ছিল, চাঁদের সফলভাবে যানটি পৌঁছে ও ফিরে আসতে সক্ষম কিনা তা দেখার।

হু-এর আশা, পরের বারে এটি মহাকাশচারীদের নিয়ে যেতে সক্ষম হবে। ১৯৭২ সালে শেষবার চাঁদের মাটিতে পা রেখেছিল মানুষ। নাসার পরিকল্পনা অনুযায়ী, ওই চন্দ্রযানের পরবর্তী অভিযানে চাঁদের দক্ষিণ গোলার্ধে পা রাখবেন বিজ্ঞানীরা। সেখানে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে জলের খোঁজ চালাবেন তাঁরা। সেই অভিযান সফল হলে পরবর্তী গন্তব্য হবে মঙ্গলগ্রহ। খনিজের খোঁজ আর গবেষণা চালিয়ে যেতে এ বার চাঁদের মাটিতে পাকাপাকি থাকার বন্দোবস্ত করবে মানুষ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়