উদ্বোধনের আর মাত্র
০০
দিন
০০
ঘণ্টা
০০
মিনিট
০০
সেকেন্ড

ভূমিকম্পে আফগানিস্তানে পরিস্থিতি অবনতি হচ্ছে: ইউনিসেফ

প্রকাশিত: জুন ২২, ২০২২, ০৮:৫৮ রাত
আপডেট: জুন ২২, ২০২২, ০৮:৫৮ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানে পাঁচ দশমিক নয় মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এতে দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ মারাত্মকভাবে বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে এক হাজার ও আহত হয়েছেন এক হাজার ৫০০। জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ জানিয়েছে, ঘণ্টার মধ্যে আফগানিস্তানের পরিস্থিতি অবনতি হচ্ছে। খবর আল-জাজিরার।

সংস্থাটির কমিউনিকেশন, অ্যাডভোকেসি ও সিভিক এনগেজমেন্টের প্রধান সামান্থা মর্ট বলেন, প্রত্যন্ত প্রদেশগুলোতে প্রবেশ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। কারণ সেখানে সম্প্রতি ভারি বৃষ্টির ফলে ভূমি ধসের ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু ইউনিসেফের কিছু দল ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে পড়া লোকজনকে উদ্ধার জন্য এই মুহূর্তে মরিয়া প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এরপর তাদের হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। আহতদের জরুরি প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

বুধবার (২২ জুন) ভোররাতে মানুষজন ঘুমিয়ে থাকার সময় আফগানিস্তান-পাকিস্তান সীমান্তে আঘাত হানে প্রবল এই ভূমিকম্প। পাকিস্তান আবহাওয়া অধিদপ্তরের ন্যাশনাল সিসমিক মনিটরিং সেন্টার এবং ইউরোপীয় ভূমধ্যসাগরীয় ভূকম্পন কেন্দ্র (ইএমএসসি) জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ১। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) অবশ্য ভূমিকম্পের মাত্রা ৫ দশমিক ৯ রেকর্ড করেছে।

ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল আফগানিস্তানের খোস্ত শহরে এবং কেন্দ্র ভূপৃষ্ঠ থেকে ৪৪ কিলোমিটার গভীরে। ইএমএসসি জানিয়েছে, প্রায় ৫০০ কিলোমিটার জায়গাজুড়ে এই ভূমিকম্পের প্রভাব অনুভূত হয়েছে। এতে আফগানিস্তানের পাশাপাশি কেঁপে ওঠে প্রতিবেশী পাকিস্তান এবং ভারতও।

ভোররাতে ভূমিকম্পটি আঘাত হানায় সেসময় ওই অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষই ঘুমিয়ে ছিলেন। ফলে কিছু বুঝে ওঠার আগেই ধসে পড়া বাড়িঘরের নিচে চাপা পড়ে প্রাণ হারান অনেকে।

আফগানিস্তান খুবই ভূমিকম্পপ্রবণ একটি দেশ। জাতিসংঘের তথ্যমতে, গত ১০ বছরে দেশটিতে ভূমিকম্পে সাত হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। ভূমিকম্পে প্রতি বছর আফগানিস্তানে গড়ে ৫৬০ জন মারা যান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়