করোনায় মৃত্যু ২ লাখ ছাড়ালো, আক্রান্ত ২৮ লাখ ৫০ হাজারের বেশি

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ১২:৩৫ পিএম, ২৬ এপ্রিল ২০২০

বিশ্বে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়েছে। আক্রান্ত ২৮ লাখ ৫০ হাজারের বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় ৬ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে মোট মৃতের সংখ্যা ৫২ হাজার ছাড়িয়েছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৮শ ৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও যুক্তরাজ্যে ৭৬৮ জন, ইতালিতে ৪২০ জন, ফ্রান্সে ৩৮৯ জন, স্পেনে ৩৬৭ জন, ব্রাজিলে ৩৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।


করোনাভাইরাসে মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে না আসলেও অর্থনীতি বাঁচাতে বেশ কিছু রাজ্য খুলে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার থেকে জর্জিয়া, ওকলাহোমা, আলাস্কায় অফিস আদালত, দোকানপাট, পার্লার, জিম খুলে দেয়া হয়ে হয়েছে। সোমবার থেকে আরও কিছু রাজ্য খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।
এদিকে চীন থেকেই করোনাভাইরাসের উৎপত্তি বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। নিউইয়র্কে ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ইউরোপ থেকে আগত ব্যাক্তির মাধ্যমে ছড়িয়েছে বলে জানিয়েছে গভর্নর এন্দ্রিউ কুমো। ইকুয়েডোর, এল সালভাদর ও ইন্দোনেশিয়ায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য ভেন্টিলেটর পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প।
শর্ত মেনে আগামী মাস থেকে কিছু ধর্মীয় উপাসনালয় খুলে দেয়ার কথা জানিয়েছে জার্মানি। মে মাসে বেলজিয়ামে নিশেধাজ্ঞা শিথিল করা হবে। তবে মে মাসের শেষ পর্যন্ত লকডাউন তুলে নেয়া হবে না বলে জানিয়েছে ফ্রান্স সরকার। লাইবেরিয়াতে লকডাউনের মেয়াদ দুই সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। লেবাননে লকডাউনের মেয়াদ ১০ মে পর্যন্ত বারালেও কার্ফিউয়ের সময় কমিয়ে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত করা হয়েছে।
এদিকে ইতালিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৫০ চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে মোট আক্রান্তের ১০ শতাংশ স্বাস্থকর্মী। জাপানে নোঙর করে রাখা ইতালির কস্টা আটলান্টিকা ক্রুজ শিপে ৬০ জনের দেহে মিলেছে ভাইরাস।
চীনের সীমান্ত প্রদেশগুলোতে কড়াকড়ি আরোপের পরও দেশটিতে বহিরাগতদের মাধ্যমে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। সংক্রমণ বাড়ায় ১২মে পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়েছে মালয়েশিয়া। সিঙ্গাপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০০ জনের দেহে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

৯ মে তারিখ পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। উজবেকিস্তানে নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে কিছু দোকানপাট খুলে দেয়া হয়েছে। শ্রীলংকায় ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সোমবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার কার্ফিউ জারি হয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৩০ হাজার লকডাউন অমান্যকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।