আমেরিকার জন্য বিপর্যয়, নিকারাগুয়ায় ফের দূতাবাস খুলল চীন

প্রকাশিত: জানুয়ারী ০১, ২০২২, ০৯:১৬ রাত
আপডেট: জানুয়ারী ০১, ২০২২, ০৯:১৬ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

মধ্য আমেরিকার দেশ নিকারাগুয়ায় আবার দূতাবাস খুলেছে চীন। তাইওয়ানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে নিকারাগুয়া বেইজিংয়ের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের কয়েক সপ্তাহ পর চীন এই পদক্ষেপ নিল।
তাইওয়ানকে চীন নিজের ভূ-খণ্ড মনে করে এবং স্ব-শাসিত তাইওয়ানের ওপর সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বেশি জোরালো চাপ সৃষ্টি করেছে। এ প্রেক্ষাপটে নিকারাগুয়ার সিদ্ধান্তকে চীনের জন্য বিজয় বলে মনে করা হচ্ছে।
আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তাইওয়ানের সঙ্গে মাত্র ১৪টি দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে। আমেরিকাসহ পশ্চিমা দেশগুলোর বেশিরভাগই সরাসরি তাইওয়ানকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি না দিলেও পরোক্ষভাবে তাইওয়ানের সঙ্গে সম্পর্ক রাখে।
দূতাবাস উন্মুক্ত করার অনুষ্ঠানে নিকারাগুয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডেনিস মনকাডা বলেছেন, "আমাদের নিকারাগুয়ায় আপনাদের সু-স্বাগতম। আমরা এই নিশ্চিত আশা করি যে, ভ্রাতৃত্বপূর্ণ দুই দেশের সামনে সফলতা এবং বিজয় রয়েছে।”
যখন আমেরিকা এবং ইউরোপের পক্ষ থেকে নিকারাগুয়ার উপর বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা জোরদার করা হয়েছে তখন দেশটির প্রেসিডেন্ট ড্যানিয়েল ওর্তেগা চীনের সঙ্গে সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন। গত নভেম্বর মাসে তিনি চতুর্থবারের মতো নিকারাগুয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন।
১৯৮৫ সালে নিকারাগুয়ার প্রেসিডেন্ট ওর্তেগা চীনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করেন কিন্তু ১৯৯০ সালে নির্বাচনের পর তিনি তাইওয়ানের স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি দেন। সূত্র: পার্সটুডে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়