আফ্রিকাকে আরও ১০০ কোটি ডোজ টিকা দিচ্ছে চীন

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২১, ১০:১১ রাত
আপডেট: নভেম্বর ৩০, ২০২১, ১০:১১ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

আফ্রিকাকে অনুদান হিসেবে আরও ১০০ কোটি ডোজ করোনা প্রতিরোধী টিকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে চীন। বিশ্বে টিকা বৈষম্য প্রকট আকার ধারণ করেছে। ধনী দেশগুলো টিকার নিয়ন্ত্রক হওয়ায় দরিদ্র দেশগুলোতে টিকা সরবরাহে শুরু থেকেই বৈষম্য দেখা দিয়েছে।
এমন পরিস্থিতিতে আফ্রিকাকে বিপুল পরিমাণ টিকার ডোজ দেওয়ার ঘোষণা দিলো চীন। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) এবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।
চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার চীন-আফ্রিকা ফোরামের অর্থনৈতিক সহযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এক ভিডিও বক্তৃতায় এই প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।
শি বলেন, সর্বমোট ১০০ কোটি ডোজ টিকা সরবরাহ করা হবে। এর মধ্যে চীন থেকে সরাসরি ৬০ কোটি ডোজ পাঠানো হবে। আর বাকি ৪০ কোটি ডোজ অন্যান্য উৎস থেকে আসবে যেমন- আফ্রিকার চীনা কোম্পানিগুলো থেকে সরবরাহ করা হবে।
প্রতি তিন বছর পর পর চীন-আফ্রিকা সহযোগিতা ফোরাম অনুষ্ঠিত হয়। চলতি বছর সেনেগাল এই ফোরামের আয়োজন করেছে। দেশটির রাজধানী ডাকারের কাছে দিয়ামনিয়াডিও শহরে এই ফোরাম চলছে যা, মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) শেষ হবে।
সোমবার ওই ফোরামে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, মানুষ ও তাদের জীবনকে সবচেয়ে গুরুত্ব দিতে হবে, বৈজ্ঞানিক পন্থা অবলম্বন করতে হবে, করোনা টিকার ক্ষেত্রে বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ ভাগাভাগি করতে হবে, টিকা দেওয়ার ব্যবধান কমিয়ে আনতে আফ্রিকায় টিকা সরবরাহ নিশ্চিত ও সাশ্রয়ী করতে হবে বলেও জানান তিনি।
এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে গত ২৪ নভেম্বর প্রথমবারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্তের খবর পৌঁছায়। এরপর নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে তা ছড়িয়ে পড়ে। এর জেরে অনেক দেশ সীমান্ত বন্ধসহ ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।
ওমিক্রন অত্যন্ত দ্রুত এবং সহজে ছড়াতে পারে এবং মানবদেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে এড়াতে পারে। যার ফলে এর বিরুদ্ধে টিকা কম কার্যকর হবে বলে মনে করা হচ্ছে। সে কারণেই ওমিক্রন নিয়ে বিজ্ঞানীরা সবচেয়ে বেশি উদ্বিগ্ন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়