মুসলিমবিদ্বেষী মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন মার্কিন রিপাবলিকান এমপি

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২১, ১০:০৬ রাত
আপডেট: নভেম্বর ৩০, ২০২১, ১০:০৬ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

মুসলিমবিদ্বেষী মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন মার্কিন রিপাবলিকান এমপি লরেন বোয়েবার্ট।
এর আগে তিনি আরেক মুসলিম নারী এমপি ডেমোক্র্যট নেত্রী ইলহান ওমরকে নিয়ে বণ্যবাদী মন্তব্য করেছিলেন। খবর রয়টার্সের।
গত শুক্রবার রিপাবলিকান এমপি লরেন বোয়েবার্ট বলেন, আমি আমার ইসলামবিদ্বেষী মন্তব্যের জন্য মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি।  আমি এমপি ইলহান ওমরের অফিসে গিয়ে এ ব্যাপারে সরাসরি তার সঙ্গে কথা বলেছি। আমি তাকে বলেছিÑ এসব অপ্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে বিতর্ক না করে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে আলোচনা করার।
এর আগে হিজাব পরায় ইলহান ওমরকে জিহাদি ও ধর্মান্ধ বলে সমালোচনা করেছিলেন এ রিপাবলিকান এমপি।
তিনি এক টুইটবার্তায় বলেন, ইলহানের মুখের দিকে তাকালে আমার খুবই বিরক্ত লাগে, জিহাদি বলে মনে হয়। কংগ্রেস এমন ভয়ানক ইসলামিক ভাবধার লোকজন থাকা নিন্দনীয়।
পরে সমালোচনার মুখে গত শুক্রবার তিনি ভুল স্বীকার করে তার মুসলিমবিদ্বেষী মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান।
আরও ২৭ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করল যুক্তরাষ্ট্র
রাশিয়ার আরও ২৭ কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে ওয়াশিংটন। তারা আগামী ৩০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্র ছাড়বেন। যুক্তরাষ্ট্রে নিয়োজিত রুশ রাষ্ট্রদূত আনাতোলি আন্তোনভ এ কথা জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র থেকে কূটনীতিক বহিষ্কারের এই ঘটনায় ক্ষোভ জানিয়েছেন আনাতোলি। খবর রয়টার্সের।
গত শনিবার সোলোভিয়েভ লাইভ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমাদের কূটনীতিকদের বহিষ্কার করা হচ্ছে। আমার কমরেডদের বড় একটি অংশ আমাদের ছেড়ে যাচ্ছে। আগামী ৩০ জানুয়ারি ২৭ কূটনীতিক পরিবারসমেত যুক্তরাষ্ট্র ছাড়বেন। যুক্তরাষ্ট্রে রুশ দূতাবাস গুরুতর কর্মী-সংকটের মুখে রয়েছে বলে জানান তিনি।
রাশিয়ার দাবি, দুই দেশের সম্পর্ক আরও তিক্ত হওয়ার পর ২০১৬ সাল থেকে শতাধিক রুশ কূটনীতিক সপরিবার যুক্তরাষ্ট্র ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়