‘এটা সত্যিই অভিভূত হওয়ার মতো ঘটনা’

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৯:৪০ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২১

হারানো জিনিস খুঁজে বের করাতেই তাঁর যত আনন্দ। খুঁজে পাওয়া সেই জিনিস যত বেশি দিনের পুরোনো, তাঁর উচ্ছ্বাসটাও যেন তত বেশি! এবার তিনি খুঁজে পেয়েছেন ৭০ বছর আগের হারিয়ে যাওয়া একটি আংটি। এ কারণেই তাঁর উচ্ছ্বাসটাও বাঁধভাঙা। গলা ছেড়ে চিৎকার আর হাত-পা ছোড়াছুড়ি!
বলা হচ্ছে কেলি স্টুয়ার্টের কথা। ১৯৪৩ সালে হারিয়ে যাওয়া সোনার আংটি খুঁজে বের করেছেন তিনি। খুঁজে বের করেছেন সেই আংটির মালিককেও। ১০ ক্যারেট সোনার আংটিটির বিশেষত্ব হলো, সেটি কলোরাডো স্কুল অব মাইনসের স্মৃতিচিহ্ন বহন করছে। আংটির মালিক রিচার্ড উইলিয়াম ডেনেকও বেঁচে আছেন। ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের ইউটাহ অঙ্গরাজ্যের রাইখফিন্ডের।
যুক্তরাষ্ট্রের বার্তা সংস্থা ইউপিআই গত মঙ্গলবার জানায়, রাইখফিন্ডের বাসিন্দা কেলি স্টুয়ার্ট তাঁর মেটাল ডিটেক্টরের সাহায্যে একটি পরিত্যক্ত বাড়ির আঙিনায় আংটিটির খোঁজ পান। এটি পান তিনি ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে। কিন্তু আংটির মালিকের সন্ধান পাচ্ছিলেন না।
স্টুয়ার্ট জানান, আংটির গায়ে খোদাই করে ‘আর.ডব্লিউ.ডি’ লেখা আছে। এর সূত্রে তিনি ইন্টারনেটে মালিককে খুঁজতে শুরু করেন। নিজের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের অ্যাকাউন্ট থেকেও এ ব্যাপারে পোস্ট দিয়ে সবার সহায়তা চান তিনি। ডেনেক জানান, তিনি ১৯৪৩ সালে কিছুদিনের জন্য রাইখফিল্ডে ছিলেন। তখন আংটিটি হারিয়ে ফেলেন। তিনি কলোরাডো স্কুল অব মাইনসের শিক্ষার্থী ছিলেন। আংটিটি ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ‘ক্লাস রিং’।
এরই মধ্যে স্টুয়ার্টের সঙ্গে ডেনেকের টেলিফোনে কথা হয়েছে। সাত দশক আগে হারানো আংটির খোঁজ পেয়ে অভিভূত ডেনেক। এ জন্য স্টুয়ার্টকে অনেক ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এটা সত্যিই অভিভূত হওয়ার মতো ঘটনা।’