মর্গে নড়ে ওঠা সেই যুবক এবার সত্যিই মারা গেলেন

Online Desk Aminul Online Desk Aminul
প্রকাশিত: ০৯:৩৬ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২১

মৃত ঘোষণা করে পুরো রাত রাখা হয় মর্গে। তবু বেঁচে ছিলেন। হঠাৎ নড়ে ওঠায় টনক নড়ে ডাক্তারদের। এরপর তাকে উদ্ধার করে ফের নিয়ে যাওয়া হয় জেলা হাসপাতালের শয্যায়। তবে এ বার চিকিৎসকেরা চারদিন চেষ্টা চালিয়েও বাঁচাতে পারলেন না ওই যুবককে। মঙ্গলবার মৃত্যু হয়েছে শ্রীকেশ কুমার নামে ওই যুবকের।
গেল ১৮ নভেম্বর দুর্ঘটনার মুখে পড়েছিলেন উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদের ওই যুবক। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসক তাকে দেখে মৃত বলে ঘোষণা করে দেন। ময়নাতদন্তের জন্য সোজা মর্গে পাঠানো হয় তাঁর ‘দেহটি’। তবে পরের দিন সকালে পরিবারের সদস্যদের থেকে ময়নাতদন্তের অনুমতি আদায় করতে মর্গে ডেকে পাঠানোর পর ভাঙে ভুলটি। নজরে আসে বেঁচে আছেন ওই যুবক! সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল শ্রীকেশকে। তবে এ বার সত্যিই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন তিনি।
ঘটনার তদন্ত হবে বলে আশ্বাস মোরাদাবাদ জেলা হাসপাতালের। দুর্ঘটনার পরে যে চিকিৎসক প্রথম দেখেন শ্রীকেশকে, তার বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলেছে যুবকের পরিবার। তাদের অভিযোগ, ‘‘তিনটে হাসপাতাল ঘুরে শ্রীকেশকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ওই হাসপাতালে। যে চিকিৎসক তখন ডিউটিতে ছিলেন তিনিই চেকআপ করেন, তবে চিকিৎসা করেননি। বলেন, হদ্স্পন্দন নেই, রক্তচাপও নেই...ও নাকি মারা গিয়েছে।’