যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক কেমন হবে, জানালেন তালেবান মুখপাত্র

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০৮:০২ পিএম, ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

দ্বিতীয় দফায়  আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর নতুন সরকার গঠন করতে যাচ্ছে তালেবান। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি ইতোমধ্যেই অর্থনৈতিক দুরাবস্থায় পড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম পড়ে গেছে স্থানীয় মুদ্রা আফগানির। ব্যাংকগুলোতে দেখা দিয়েছে নগদ অর্থের সংকট। সঙ্গে যোগ হয়েছে খাদ্য সংকটের আশঙ্কা। বন্ধ রয়েছে বৈদেশিক সাহায্য। দেশের এই অবস্থায় ভবিষ্যতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সুসম্পর্ক রক্ষাই ইঙ্গিত দিল তালেবান।


এ ব্যাপারে তালেবানের মুখপাত্র  সুহাইল শাহীন জানান, দুপক্ষে স্বার্থ রক্ষা করে  আমরা কীভাবে ইতিবাচক এবং গঠনমূলক উপায়ে একসঙ্গে কাজ করতে পারি সেদিকে মনোনিবেশ করা উচিত। এক মার্কিন টেলিভিশন চ্যালেনকে এ কথা বলেন তিনি।

পূর্বনির্ধারিত ৩১ আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, আমরা একটা অধ্যায় বন্ধ করে দিয়েছি।এটাই আমাদের কাজ। আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পেরেছি। কিন্তু এখন এসব শেষ হয়েছে। এসব এখন অতীত। এখন আমাদের দুপক্ষের জন্যই মঙ্গলজনক ভবিষ্যতের দিকে মনোনিবেশ করা উচিত।

এদিকে,  শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) নতুন মন্ত্রিসভা ঘোষণা করবে তালেবান। মন্ত্রিসভায় ৮০ ভাগ আসনেই তালেবানের দোহা টিমের সদস্যরা থাকবেন বলে সংগঠনটির সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে এক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা বারাদার আফগানিস্তানের নতুন সরকারের নেতৃত্ব দেবেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যম টোলো নিউজ তালেবানের একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

মন্ত্রিসভায় বারাদারের সঙ্গে তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুব এবং শের মোহাম্মদ আব্বাস স্ট্যানিকজাইও থাকবেন বলে জানা গেছে।