শ্মশানে কেঁদে উঠলেন ‘মৃত’ বৃদ্ধা

BoguraProdip BoguraProdip
প্রকাশিত: ১১:০৪ পিএম, ১৫ মে ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: শ্মাশানে চিতা তৈরি করা হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই সেখানে দাহ করা হবে। এমন মুহূর্তে কেঁদে উঠলেন সদ্য মৃত ঘোষণা করা এক বৃদ্ধা। এই দৃশ্য দেখে উপস্থিত সবাই চমকে গেলেন। এমন ঘটনা ঘটল ভারতের মহারাষ্ট্রের বারামাটির মুধালে গ্রামে।
৭৬ বছরের শকুন্তলা গায়কোয়াড নামের ওই বৃদ্ধা কয়েকদিন আগেই করোনায় আক্রান্ত হন। বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু বয়সজনিত কারণে ক্রমশই কাহিল হয়ে পড়ছিলেন তিনি। অবনতি হচ্ছিল শারীরিক পরিস্থিতির। শেষ পর্যন্ত বাড়ির লোক ঠিক করেন, তাকে হাসপাতালে না নিয়ে আর উপায় নেই।
ওই বৃদ্ধাকে গাড়িতে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালে কোথাও বেড নেই। কার্যত হতভম্ব হয়ে যান সবাই। কী করা যায় ভাবতে ভাবতেই দেখা যায় ক্রমশই ঝিমিয়ে পড়ছেন ওই বৃদ্ধা। ক্রমে তিনি একেবারেই অচেতন হয়ে পড়েন। তার শরীরে কোনো স্পন্দন ছিল না। একেবারে নিঃসার হয়ে যান।
পরিবারের সদস্যরা ধরে নেন শকুন্তলার মৃত্যু হয়েছে। তারা তাকে নিয়ে ফিরে আসেন বাড়িতে। খবর দেওয়া হয় নিকটাত্মীয় ও প্রতিবেশীদের। সকলে তৈরি হন শবযাত্রার জন্য। শেষ পর্যন্ত বৃদ্ধাকে নিয়ে শ্মশানেও পৌঁছে যান তারা।
ওই ঘটরার পরপরই কার্যত ঘটে যায় সেই ‘অলৌকিক’ ঘটনা। চুল্লির সামনে ট্রলিতে শোওয়ানো অবস্থাতেই হঠাৎ কেঁদে ওঠেন বৃদ্ধা। দেখা যায় তিনি চোখ মেলে চারপাশে তাকাচ্ছেন। এটা দেখে বিস্মিত হয়ে যান শ্মশানযাত্রীরা। তৎক্ষণাৎ তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আপাতত তিনি বারামাটির সিলভার জুবিলি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন