পশ্চিমবঙ্গে ১৫ দিনের কঠোর লকডাউন

BoguraProdip BoguraProdip
প্রকাশিত: ০৬:২৩ পিএম, ১৫ মে ২০২১


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা মোকাবিলায় দুই সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সরকারের ভাষায় একে ‘কড়া বিধিনিষেধ’ বলা হচ্ছে। আগামীকাল রোববার (১৬ মে) সকাল ৬টা থেকে এই লকডাউন কার্যকর হবে। যা বহাল থাকবে আগামী ৩০ মে পর্যন্ত। শনিবার (১৫ মে) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এই লকডাউন ঘোষণা করেন।
মুখ্যসচিব জানান, রোববার সকাল ৬ টা থেকে ৩০ মে পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সরকারি, বেসরকারি অফিস ও প্রতিষ্ঠান (জরুরি পরিষেবা ব্যতীত), বিনোদনকেন্দ্র, শপিংমল, রেস্টুরেন্ট, সুইমিংপুল, বিউটি পার্লার বন্ধ থাকবে। তবে সবজি-ফল-মুদিখানা-দুধ ও মাংসের দোকান সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। মিষ্টির দোকান সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।
লকডাউনে লোকাল ট্রেন, মেট্রো, বাস, লঞ্চ সার্ভিস বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে পার্ক, চিড়িয়াখানাও। রাজ্যে খাদ্যসামগ্রীর ট্রাক ছাড়া অন্যান্য ট্রাক চলাচল বন্ধ থাকবে। রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত বাইরে বের হওয়া যাবে না। বিয়েবাড়িতে ৫০ জনের বেশি জনসামগম করা যাবে না। ব্যাংক ও এটিএম সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চালু থাকবে। চালু থাকবে হোম ডেলিভারি ও ই-কমার্স।
শিল্প-কারখানা বন্ধ থাকবে লকডাউনে। তবে চা-বাগানে প্রতি সিফটে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে এবং জুট মিলে প্রতি সিফটে ৩০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চলবে।
এদিকে, পশ্চিমবঙ্গে করোনায় একদিনে ১৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা রাজ্যে এ পর্যন্ত একদিনে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু। শুক্রবার (২৪ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা আবারও প্রায় ২১ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছে। এর মধ্যে উত্তর ২৪ পরগনায় নতুন করে চার হাজারের বেশি শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় চার হাজার। আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়তে থাকায় সংক্রমণের মোট হার পৌঁছেছে নয় দশমিক ৬৮ শতাংশে, যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ।