ফ্রান্সের পিংক সিটিতে নির্মিত হলো শহীদ মিনার

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০১:০৪ এএম, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

এ বছর বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে ২১ ফেব্রুয়ারি উদযাপনের ক্ষেত্রেও ঘটেছে ছন্দপতন। ফ্রান্সের দূতাবাস সীমিত পরিসরে আর ইউনেসকো একটি ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান করেছে। এদিকে পিংক সিটি খ্যাত তুলুজ শহরে এবার একটি স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মিত হওয়ায় খুশি প্রবাসীরা।

মুখের ভাষার জন্য প্রাণ দিয়ে বিরল ইতিহাস গড়েছে বাঙালি। সেই রক্তাক্ত স্মৃতিবিজড়িত অমর একুশে ফেব্রুয়ারিতে মহান ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর লক্ষে ফ্রান্সের প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রাণের আকুতি ছিল একটি স্থায়ী শহীদ মিনারের। তবে নানা জটিলতায় থমকে যায় সেটি। তবে, প্যারিসে সম্ভব না হলেও পিংকসিটি খ্যাত তুলুজ শহরে এবার একটি স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মিত হয়েছে। অবশেষে, বিদেশের মাটিতে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর মাধ্যম হতে পেরে খুশি শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোক্তরা।

প্রতিবছর ফ্রান্সের ইউনেসকোর সদর দফতর, বাংলাদেশ দূতাবাস ও কমিউনিটির আয়োজনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে নানা আয়োজন থাকলেও করোনা সংকটের কারণে সম্ভব হচ্ছে না। তবে দূতাবাস সীমিত পরিসরে আর ইউনেসকো ভার্চুয়াল একটি অনুষ্ঠান করেছে।

তুলুজের এই স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রাণের দাবি আর আকাঙ্ক্ষার বাস্তবায়ন হলো। এর মধ্য দিয়ে প্রতি বছর এ শহীদ মিনারে এসে সালাম, বরকত আর নাম না জানা অনেক শহীদের মায়ের ভাষার জন্য আত্মত্যাগের গৌরবময় ইতিহাস জানতে পারবে, এ দেশে বেড়া ওঠা বাংলাদেশি নতুন প্রজন্ম।