ট্রাম্পকে অভিশংসনে ডেমোক্র্যাটদের প্রস্তাব

Online Desk Online Desk
প্রকাশিত: ০২:০৩ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবন ক্যাপিটলে গত বুধবার হামলার ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে গতকাল সোমবার অভিশংসন প্রস্তাব এনেছেন ডেমোক্র্যাটরা। ‘বিদ্রোহে উসকানির’ অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এই অভিশংসন প্রস্তাব আনা হয়েছে।

ডেমোক্র্যাটরা জানিয়েছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সরাতে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স সংবিধানের ২৫তম সংশোধনী অনুযায়ী না এগোলে আগামী বুধবার হাউসে ভোটাভুটি হবে। মাইক পেন্স এরই মধ্যে সে পথে হাঁটতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। অভিশংসন প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে- ক্যাপিটলে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরের ঘটনায় সমর্থকদের উৎসাহ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট। কোনো তথ্য প্রমাণ ছাড়াই ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ করে যাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম কোনো প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসনের মুখে পড়তে যাচ্ছেন।

২০১৯ সালে তাঁকে অপসারণে নিম্নকক্ষে অভিশংসন প্রস্তাব পাস হয়। তবে উচ্চকক্ষ সিনেটের রায়ে তা বানচাল হয়ে যায়। হাউসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেছেন, প্রেসিডেন্ট আমাদের দেশ, গণতন্ত্র ও আমেরিকার জনগণের জন্য হুমকি। তাঁকে দ্রুতই সরাতে হবে।

ট্রাম্পের পদত্যাগ, অপসারণ ও তাঁর বিরুদ্ধে অভিশংসনের দাবি জোরালো হচ্ছে। ডেমোক্র্যাটদের পাশাপাশি কোনো কোনো রিপাবলিকানও এই দাবি জানাতে শুরু করেছেন। গত বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের গণনা এবং জো বাইডেনের বিজয় প্রত্যয়নের জন্য কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন চলাকালে ওয়াশিংটনের ক্যাপিটলে সশস্ত্র বিক্ষোভকারীরা হামলা চালায় ট্রাম্প সমর্থকরা। এ ঘটনায় এক পুলিশ সদস্যসহ পাঁচজন নিহত হন।

গতকাল সোমবার ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৈঠকে উভয়ে একমত হয়েছেন যে, গত বুধবার যারা আইন লঙ্ঘন করে ক্যাপিটলে ঢুকে তান্ডব চালিয়েছে তারা আমেরিকার জনগণকে প্রতিনিধিত্ব করে না। হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সিএনএন একথা জানিয়েছে। এর আগে গত শুক্রবার হোয়াইট হাউস অভিশংসনকে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে আখ্যায়িত করে।