করোনা: প্রাণিদেহে শতভাগ সফল বাংলাদেশের ভ্যাকসিন ব্যানকোভিড

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ০৩:১১ পিএম, ০২ অক্টোবর ২০২০

করোনার লাগাম টানতে নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান গ্লোব বায়োটেক। প্রতিষ্ঠনটির উদ্ভাবিত ‘ব্যানকোভিড করোনা প্রতিরোধে সক্ষম’ মার্কিন মেডিকেল জার্নাল বায়োআর্কাইভে এমন প্রতিবেদন প্রকাশের পর আশার আলো দেখছেন চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, গবেষণাটি সফল হলে এটি হবে দেশ ও বিশ্বের জন্য এক বিস্ময়কর অর্জন। 

প্রাণঘাতী কোভিড-১৯-এর টিকা উদ্ভাবনে সাফল্যের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেল গ্লোব বায়োটিক। তাদের উদ্ভাবিত ‘ব্যানকোভিড’ করোনা মহামারি প্রতিরোধে সক্ষম বলে জানিয়েছে মার্কিন মেডিকেল জার্নাল বায়োআর্কাইভ। এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার নিজেদের ওয়েবসাইটে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে প্রতিষ্ঠানটি।

গ্লোব বায়োটেকের দাবি, প্রাণিদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শেষে নিরাপত্তা ও কার্যকারিতার মানদণ্ডে শতভাগ উতরে গেছে ভ্যাকসিনটি। পরবর্তী পদক্ষেপ হিসেবে সিআরও প্রস্তুত করে তা বিএমআরসিতে জমা দেয়ার জন্য তৈরি করা হয়েছে। অনুমতি মিললে চলতি মাসেই মানবদেহে পরীক্ষা শুরু করবে বলে জানান গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধান কর্মকর্তা ডা. আসিফ মাহমুদ।

এদিকে জার্নালটি এখনও রিভিউ হয়নি জানিয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রাণিদেহে সফল হলেও মানবদেহের উপযোগী হতে ভ্যাকসিনটিকে পাড়ি দিতে হবে আরও কয়েকটি ধাপ।

এ প্রসঙ্গে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ সৈয়দ আতিকুল হক বলেন, ভ্যাকসিনটির এ পর্যন্ত সফলতা বৈজ্ঞানিকভাবে বেশ বলিষ্ঠ অবস্থানই প্রমাণ করে। আমাদের রক্তে যেসব উপাদান তৈরি হলে জীবাণু বা ভাইরাসের বিরুদ্ধে আমাদের শরীর লড়াই করতে পারে সেই জিনিসগুলো যাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় ইমিউনোজেনেসিটি বলে, এই ভ্যাকসিনটি ইঁদুরের শরীরে তা ভালোমতো তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। 

পরীক্ষার মানদণ্ডে ভ্যাকসিন উতরে গেলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিকল্প নেই বলেও মত দিয়েছেন তিনি। ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলেই কিন্তু পুরোপুরি সুরক্ষা নিশ্চিত হয় না। ভ্যাকসিনটি কত দামে পাওয়া যাচ্ছে, ভ্যাকসিন আসলে কতটা কার্যকর; এসব বিষয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে জানান সৈয়দ আতিকুল হক। তাই পৃথিবী থেকে করোনা দূর না হওয়া পর্যন্ত মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, হাঁচি ও কাশি শিষ্টাচার মেনে চলতেই হবে। 

ভ্যাকসিনের অগ্রগতি জানাতে আগামী রোববার (৪ অক্টোবর) সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরবে গ্লোব বায়োটেক। বর্তমানে বিশ্বে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে রয়েছে বিভিন্ন দেশের অন্তত ২০০টি প্রতিষ্ঠান।