১২ আগস্ট শুরু হবে সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা

প্রকাশিত: আগস্ট ০৮, ২০২২, ১২:৪১ দুপুর
আপডেট: আগস্ট ০৮, ২০২২, ১২:৪১ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের ‘ক’ ইউনিটের অধীনে বাংলা, ইংরেজি, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত ও জীববিজ্ঞান মোট ছয়টি বিষয়ের ওপর প্রশ্ন করা হবে। ছয়টি বিষয়ের মধ্যে থেকে যেকোনো চারটি বিষয় উত্তর করতে হবে।

‘ক’ ইউনিটের মোট নম্বর ১২০, জিপিএর ওপর ২০ নম্বর থাকবে। ১০০টি এমসিকিউ তে ১০০ নম্বর। কোনো নেগেটিভ মার্কিং নেই। পরীক্ষা সময় থাকবে ৬০ মিনিট। পাস নম্বর ৪০।

বিজ্ঞান বিভাগে বিষয়ভিত্তিক মানবন্টন- বাংলা ২৫, ইংরেজি ২৫, পদার্থবিজ্ঞান ২৫, রসায়ন ২৫, গণিত ২৫ ও জীববিজ্ঞান ২৫ নম্বর।

বিষয়ভিত্তিক প্রস্তুতি

বাংলা

বাংলা প্রথম পত্রের জন্য উচ্চমাধ্যমিক বাংলা বইয়ের সিলেবাস অনুযায়ী গদ্য এবং পদ্য পড়তে হবে। প্রতিটি গদ্য ও পদ্যের উৎস, লেখক পরিচিত, কবি পরিচিত, শব্দার্থ, গল্প বা কবিতার উক্তি ভালো করে পড়তে হবে। 

বাংলা দ্বিতীয় পত্রের জন্য নবম-দশম শ্রেণির বাংলা ব্যাকরণ বইটি পড়তে হবে। যেসব বিষয় থেকে প্রশ্ন হতে পারে- ধ্বনি প্রকরণ, সমাস, উপসর্গ, প্রকৃতি ও প্রত্যয়যুক্ত বর্ণ বিশ্লেষণ, বানান শুদ্ধিকরণ, শব্দ সম্ভার, পুরুষ ও স্ত্রীবাচক শব্দ, সংখ্যাবাচক শব্দ, দ্বিরুক্ত শব্দ, বাক্য রূপান্তর, বচন, পদাশ্রিত নির্দেশক, পদ প্রকরণ, পদ পরিবর্তন, ক্রিয়ার কাল ও ভাব এবং বাক্য প্রকরণ।

ইংরেজি

ইংরেজি প্রথম পত্রের জন্য উচ্চ মাধ্যমিকের ইংরেজি বোর্ড বইয়ের কবিতা, কবির নাম, কবিতার লাইনগুলো পড়তে হবে। বিশেষ করে প্রথম ও শেষ লাইন থেকে বেশি প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। 

ইংরেজি গ্রামারের জন্য যেকোনো একটি গ্রামার বই অনুসরণ করলেই হবে। যে বিষয়গুলোর দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে- Vocabulary, Phrase and Idioms, Group Verb, Appropriate Preposition, Right form of Verbs, Narration, Article, Tag Question, Sentence ও Parts of Speech.

গণিত

গণিত বিষয়ের প্রস্তুতির জন্য মেইন বইয়ের উদাহরণগুলো ফলো করতে হবে। সূত্রগুলো  অবশ্যই প্র্যাকটিস করতে হবে। সাধারণত সূত্র থেকেই ম্যাথ বেশি আসে।

জীববিজ্ঞান

জীববিজ্ঞান লিখিত অংশের জন্য বোর্ড পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো খ এবং গ নম্বর প্রশ্নের পাশাপাশি বৈশিষ্ট্য এবং পার্থক্যগুলো খুবই গুরুত্ব সহকারে পড়তে হবে। এবং এমসিকিউ প্রশ্নের জন্য ছক পড়তে হবে।

রসায়ন

রসায়নের বিষয়ের জন্য স্পেশাল ইকুয়েশনগুলো পড়তে হবে। লিখিত অংশের জন্য বোর্ডে খ এবং গ প্রশ্নগুলো পড়তে হবে। 

পদার্থবিজ্ঞান

পদার্থবিজ্ঞান জন্য কুয়েট ও চুয়েটের এমসিকিউ অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বোর্ড বই ভালো করে পড়তে হবে এবং বিগত বছরের প্রশ্নগুলো পড়তে হবে।

ঢাবি অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজ গুলো হলো- ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, দৈনিক করতোয়া এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়