পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ০৩:৫৬ পিএম, ২০ মে ২০২০

বকেয়া বেতন পরিশোধ, ঈদ বোনাস, লে-অফ ঘোষণা বাতিলের দাবিতে বিভিন্ন স্থানে শ্রমিকদের আন্দোলন অব্যাহত আছে। টঙ্গী, সাভার ও আশুলিয়ায় ৭টি কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছেন। এর মধ্যে টঙ্গীতে ৪টি কারখানায় বকেয়া বেতন ও শতভাগ বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা। গাজীপুর শিল্প পুলিশ ও শ্রমিকরা জানান, সকাল ৭টা থেকে গাজীপুরের টঙ্গীতে ৪টি পোশাক কারখানায় বকেয়া বেতন ও শতভাগ বেতনের দাবিতে শ্রমিকরা কারখানার অভ্যন্তরে কর্মবিরতি করে বাইরে গিয়ে বিক্ষোভ করেন। টঙ্গীর বিসিক এলাকায় কয়েকটি কারখানায় মার্চ ও এপ্রিল মাসের বেতন বোনাসের দাবিতে কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেন। প্রতিদিনই গাজীপুরে বিভিন্ন পোশাক কারখানায় শ্রমিকরা একই কারণে বিক্ষোভ করছেন। এতে করে শ্রমিকদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না। পোশাক কারখানাগুলোতে এভাবে যদি শ্রমিকদের বিক্ষোভ হতে থাকে তাহলে শ্রমিকের করোনায় আক্রান্তের ঝুঁকি রয়েছে। এ ছাড়াও নারায়ণগঞ্জে নগরীর চাষাড়ায় বকেয়া বেতনের দাবিতে দুটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের মহামারিতে শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিয়ে উদ্বেগের মধ্যেই কারখানা চালু করা হয়েছে। দেশের সচেতন মহল মনে করেন, এই সিদ্ধান্ত সঠিক হয়নি। পরিস্থিতি বুঝে কারখানা চালু করা উচিত ছিল। কারখানা চালু করার কয়েক দিনের মধ্যেই ১০০ পোশাক শ্রমিক আক্রান্ত হয়েছে। এটা যে আগামীতে আরও বাড়বে না সে নিশ্চয়তা কে দেবে। শ্রমিকরা যেখানে বসবাস করছে বস্তিতে অথবা বাসায় সেখানকার পরিবেশ কতটা করোনা ঝুঁকিমুক্ত এই প্রশ্ন সামনে চলে আসে। মনে রাখতে হবে, তৈরি পোশাক শিল্প দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রেখেছে। যথাসময়ে তাদের বেতন-ভাতা বোনাস পরিশোধ করতে হবে। সরকার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে করোনাকালে কোনো কারখানা বন্ধ করা চলবে না। আমরা আশা করবো, অতি দ্রুত শ্রমিক স্বার্থ সংরক্ষণ করা হোক।