নষ্ট হচ্ছে শ্রম ঘন্টা ও অর্থ

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ০৭:৩৪ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রাজধানী তো বটেই, আন্ত:জেলা পরিবহণের যাত্রীরাও যেন যানজটকে এখন নিয়তি বলে মেনে নিয়েছে। রাজধানী ঢাকায় কয়েক কিলোমিটার পথ যেতে কয়েক ঘন্টা লেগে যাচ্ছে। এর আগে বিশ্বব্যাংকের এক হিসেবে দেখা যাচ্ছে, যানজটে রাজধানীতে গড়ে প্রতিদিন ৩২ লাখ কর্মঘন্টা নষ্ট হচ্ছে। মহানগরীর ৭৩টি মোড়ে আটকে যাচ্ছে যানবাহন। গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, শুধু রাজধানীতেই যানজটে আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে ৯৮ হাজার কোটি টাকা। জ্বালানি পুড়ছে প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকার। সম্প্রতি পরিচালিত একটি গবেষণা বলছে গত জুনে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজটের কারণে প্রতিদিন নষ্ট হয়েছে এক কোটি ৯০ লাখ কর্মঘন্টা। টাকার অংকে প্রতিদিন ক্ষতির পরিমাণ ১৫২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। যানজট নিরসনে সরকার তথা সংশ্লিষ্টরা নানান উদ্যোগের কথা বলেছিলেন। বাস্তবতা হলো রাজধানীর যানজট নিরসন হওয়া দূরের কথা যানজটে কর্মঘন্টা অপচয়ের হারও বেড়েছে। যানজটের কারণে রাজধানীতে একটি যানবাহন ঘন্টায় যেতে পারে গড়ে ৫ কিলোমিটার। ১২ বছর আগেও এ গতি ছিল ঘন্টায় ২১ কিলোমিটার। নি:সন্দেহে একটি দেশ বা শহরের জন্য এ বিষয়টি অত্যন্ত উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার বিষয়। হাঁটার গতির চেয়েও যদি যন্ত্রচালিত যানবাহনের গতি কম হয়, তাহলে এর চেয়ে পরিতাপের বিষয় কি হতে পারে। নিয়ন্ত্রণহীন ছোট গাড়ি, পর্যাপ্ত বাস ও ট্রাক টার্মিনালের অভাব, যেখানে-সেখানে ব্যক্তিগত গাড়ি রেখে সড়কের জায়গা দখল ইত্যাদি কারণে ঢাকায় যানজট বেড়েছে। যানজটে যেমন সময়ের অপচয় হচ্ছে, তেমনি ব্যাহত হচ্ছে উৎপাদন। কমছে কাজের গতি। অথচ বাংলাদেশে দিনে দিনে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটছে। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে রপ্তানি নির্ভর হচ্ছে দেশ। এ অবস্থায় রাজধানীর যানজট অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় বড় প্রতিবন্ধক হিসেবে দেখা দিচ্ছে। কিছু নতুন সড়ক ও ফ্লাইওভার নির্মাণ করে যে রাজধানীর যানজট সমস্যার স্থায়ী সমাধান সম্ভব নয়, এটাও পরিষ্কার। আমরা মনে করি, নগরীকে বাসযোগ্য রাখতে প্রয়োজন ব্যাপক ভিত্তিক পরিকল্পনা ও এর বাস্তবায়ন। পরিকল্পিত ব্যবস্থায় রাজধানীর সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো সম্ভব বলে আমরা মনে করি।