ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ০৮:১৫ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০২১

কোভিড-১৯ গত এক বছরে লাখ লাখ মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। সংক্রমণের হার কয়েক কোটি ছাড়িয়েছে বলে আশংকা করা হচ্ছে। মহামারিতে রূপ নেওয়া ভয়াল এ ভাইরালে মানুষের জীবন রক্ষার মতোই শক্ত চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে অর্থনীতি বাঁচিয়ে রাখা।  বিশ্ব অর্থনীতির ইতিহাসে ১৯৩০ সালের মহামন্দার পর সবচেয়ে বড় মন্দার মুখোমুখি এই গ্রহের মানুষ। এই আঘাত বাংলাদেশের অর্থনীতিতেও পড়েছে। অসংখ্য মানুষের রুটি রুজিতে টান পড়েছে, ব্যাপকভাবে কর্মি ছাঁটাই হয়েছে। মুখ থুবড়ে পড়েছে উৎপাদনশীলতাও। ব্যবসায়ীদের দৃষ্টিতে বেঁচে থাকার, ব্যবসা করার নয়। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই আশার আলো দেখছে বাংলাদেশ। বেশির ভাগ দেশের মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) সংকোচন হবে বলে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো পূর্বাভাস দিয়েছে। করোনা খড়গে কর্মহীন হয়েছেন কোটি কোটি মানুষ। এমন দুর্গতির মধ্যেও বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নিয়ে আশার কথাই বলেছে বিশ্ব ব্যাংক, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর আভাসও দিয়েছে।

একই সঙ্গে তারা জানিয়েছে, করোনাকালীন অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের সঠিকপথেই এগোচ্ছে বাংলাদেশ। দেশের অর্থনীতিতে ২০২০ সালের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১ লাখ ২১ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা ও অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার প্যাকেজ ঘোষণা। তার এ দূরদর্শী পদক্ষেপ দেশে ও বিদেশে ব্যাপক প্রশংসিত হয়। এ ছাড়া মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় এ বছরই আরও প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল জানিয়েছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি ঠিক জায়গায় আছে, ভালো অবস্থানে আছে। বছরজুড়েই অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার প্রধান নির্দেশক মূল্যস্ফীতি, সুদের হার, বাজেট ঘাটতি এবং সরকারি ঋণ বা জিডিপি অনুপাতের অবস্থান সন্তোষজনক ছিল। অসীম সাহসে বুক বেঁধে ঐক্যবদ্ধভাবে পরিস্থিতি মোকাবিলার প্রয়াস চালাতে হবে।