ইভ্যালি ও রাসেলের গ্রেপ্তার নিয়ে যা বললেন শবনম ফারিয়া

Online Desk Saju Online Desk Saju
প্রকাশিত: ০৭:১৭ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির শুভেচ্ছাদূত হিসেবে যুক্ত হয়েছিলেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান খান। আর প্রতিষ্ঠানটির প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। তবে এ মুহূর্তে তাদের কেউ এখন আর ইভ্যালির সঙ্গে নেই। দু’জনই প্রতিষ্ঠানটি থেকে নিজেদের সরিয়ে এনেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) গ্রেপ্তারের পর শবনম ফারিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বেতন না পাওয়ায় এক মাস আগেই চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন তিনি।

শবনম ফারিয়া ইভ্যালিতে প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন তিন মাস আগে। কিন্তু এই তিন মাসে তিনি প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে এক টাকাও পাননি বলে অভিযোগ তার।

শবনম ফারিয়া বলেন, প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর অফিসিয়ালভাবে তিন মাস কাজ করলেও কোনো বেতন আমি পাইনি। আমি যোগদানের পর থেকেই জানতে পারি ভেতরে বেতন নিয়ে সমস্যা চলছিল। তাই তিন মাস কাজের পরই আগষ্টের শেষ সপ্তাহে আমি চাকরি ছেড়ে চলে আসি

ইভ্যালির চেয়ারম্যান ও সিইও আটকের বিষয়ে তার মন্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, যখন চাকরিতে ছিলাম তখনও ইভ্যালি নিয়ে আমি কোনো স্টেটমেন্ট দেয়নি। এখন তো আর চাকরি করছি না, তাই এখন প্রতিষ্ঠানটি নিয়ে স্টেটমেন্ট দেওয়ার প্রশ্নই আসে না।

চলতি বছরের মার্চ মাসে ‘ফেস অব ইভ্যালি’ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটিতে যোগ দেন তাহসান। এরপর ১৫ মে তাদের একটি বিশেষ ফেসবুক লাইভে অংশ নেন তিনি। যেখানে অংশ নিয়েছিলেন তাহসানের সাবেক স্ত্রী, অভিনেত্রী-গায়িকা মিথিলাও।

জানা গেছে, প্রায় ৪ মাস আগেই ইভ্যালির সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেন তাহসান। তিনি এখন আর প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে নেই। ক্রেতাদের পণ্য ডেলিভারি না দেওয়ার বিতর্ক বাজারে ছড়িয়ে পড়লে মে মাসে ইভ্যালির সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেন এই সঙ্গীত তারকা। চুক্তির সময় কিছু টাকা পেলেও পরবর্তী দুই মাসে প্রতিষ্ঠানটি থেকে কোনো অর্থ পাননি তিনি।


আরও পড়ুন