ময়মনসিংহে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা

Staff Reporter Staff Reporter
প্রকাশিত: ১০:৩৪ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে দশম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের  করেছেন। গতকাল বুধবার অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যকে আটক করে কোর্টে সোর্পদ করা হয়েছে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, রাজীবপুর ইউনিয়নের বৃ-দেবস্থান গ্রামের ইছহাক আলীর মেয়েকে স্থানীয় ইউনুছিয়া দাখিল মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার পথে রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত আজিজুল হকের পুত্র গাজীপুর মেট্রোপলিটনে কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল ইজাদুল হক রতন (২১) প্রায়ই  প্রেমের প্রস্তাব দিত। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীর সাথে ইজাদুলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

কর্মস্থলে থেকে ওই ছাত্রীর সাথে ইজাদুল ফোনে ও ফেসবুকে সবসময় যোগাযোগ রক্ষা করত। গত মঙ্গলবার রাতে ইজাদুল হক ওই ছাত্রীর সাথে দেখা করতে তাদের বাড়ি যায় এবং ফোনে ডেকে বাড়ি থেকে বের করে পাশের এক নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষিতা তাকে বিয়ে করার জন্য বললে ইজাদুল বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করে কেটে পড়তে চাইলে ধর্ষিতার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ধর্ষক ইজাদুলকে আটক করে ছাত্রীর পরিবারের হাতে তুলে দেয়। ছাত্রীর পিতা বিষয়টি ইজাদুলের অভিভাবককে জানালে তারা বিয়ের পরিবর্তে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। পরে ঘটনাটি ঈশ্বরগঞ্জ থানাকে অবহিত করলে পুলিশ অভিযুক্ত ইজাদুলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ঈশ^রগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান আকন্দ জানান, ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে।